পাকিস্তানে বড় হামলা, চীনা ইঞ্জিনিয়াদের উপর এলোপাথাড়ি গুলি-বোমা! আতঙ্কে গোটা দেশ

বাংলা হান্ট ডেস্ক : জঙ্গি হামলায় কেঁপে উঠল পাকিস্তানের (Pakistan) গ্বদর (Gwadar) বন্দর! নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে নির্বিচারে চলেছে গুলি এবং ঘটেছে বিস্ফোরণ। পাল্টা গুলি চালায় পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী। আর তাতে নিহত হয়েছে ৮ বন্দুকবাজ। গোটা ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে সেখানে কাজ করা কর্মীদের সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে।

   

এখানে বলে রাখা ভালো যে, গ্বদর বন্দর মূলত তৈরি হয়েছে চিনের টাকায়। চিনই সেখানকার বন্দর দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে। এমতবস্থায় প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি এই হামলা চিনের ক্ষতিসাধনের উদ্দেশ্যে? কড়া নিরাপত্তা থাকা সত্ত্বেও এমন এই হামলার মাধ্যমে কি কোনও হুঁশিয়ারি দেওয়া হল লাল সেনাকে?

আরও পড়ুন : ভারত বিদ্বেষের জের, পর্যটনের পর এবার চরম ‘শিক্ষা সংকট’ মলদ্বীপে! কোণঠাসা মুইজ্জু

ঠিক কী ঘটেছে?

পাকিস্তানি সংবামাধ্যম সূত্রে জানা যাচ্ছে যে, অজ্ঞাত পরিচয় হামলাকারীরা হাতে বন্দুক ও বোমা নিয়ে বালুচিস্তানের গদর বন্দরে প্রবেশ করে। এরপর তারা প্রথমে বন্দর ও আশপাশের এলাকায় হামলা চালায়। জানা যাচ্ছে, হামলাকারীরা বন্দরের ভেতরে অবস্থিত ভবনেও প্রবেশ করে। এর পর সেখানে গুলি চালানো হলে বন্দরের উপস্থিত কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

হামলার দায় স্বীকার করেছে BLA

আতংকবাদীরা হামলা চালালে এদিক থেকে পুলিশ এবং নিরাপত্তাকর্মীরাও পাল্টা গুলি চালায়। তাদের গুলিতে নিহত হয় দুই বন্দুকধারী। যদিও হামলাকারীদের এখনও শনাক্ত করা যায়নি। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, বেলুচিস্তান লিবারেশন আর্মি অর্থাৎ BLA এই হামলার দায়ভার গ্রহণ করেছে। উল্লেখ্য যে, এই প্রথম না এর আগেও বেশ কয়েকবার গদর বন্দর এবং সংলগ্ন এলাকায় হামলা চালিয়েছে BLA।

আরও পড়ুন : এখনই কাটছে না দুর্যোগের মেঘ! দক্ষিণবঙ্গে আর কতদিন বৃষ্টি? জানাল আবহাওয়া দফতর

প্রসঙ্গত গ্বদর বন্দরের কথা বললে, এটি চিন পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (CPEC) প্রকল্পের অধীনে তৈরি করা হয়েছে। চিন ও পাকিস্তান গ্বদর বন্দর নিয়ে একটি চুক্তিও স্বাক্ষর করেছে। সেই চুক্তির আওতায় দুই দেশই এই বন্দর ব্যবহার করবে এবং সেখানে বিনিয়োগ করবে চিন। গদর বন্দরের সাথে যুক্ত রয়েছে চীনের জিনজিয়াং অঞ্চল।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর