ভয়ঙ্কর! জলপাইগুড়িতে জমি মাফিয়াদের তাণ্ডব! রামকৃষ্ণ মিশন থেকে ৭ জনকে তুলে নিয়ে গেল দুষ্কৃতীরা

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শনিবার রাতে জলপাইগুড়ির রামকৃষ্ণ মিশনের (Jalpaiguri Ramkrishna Mission) একটি বাড়িতে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। স্থানীয় কেজিএফ দলকে ব্যবহার করে ওই বাড়ি এবং জমি দখলের জন্য জমি মাফিয়ারা এমনটা করছে বলে খবর। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনৈতিক তরজা। সোমবার ঝাড়গ্রামের সভা থেকে এই নিয়ে সরব হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

বর্তমানে ওই জমি ফিরে পাওয়ার জন্য বর্তমানে সরকারি ভূমি রাজস্ব দফতর, থানা সহ নানান জায়গায় ছুটতে হচ্ছে রামকৃষ্ণ মিশনের (Ramkrishna Mission) সন্ন্যাসীদের। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, কে জি এফ দলকে ব্যবহার করে ওই জমি হাতাতে চাইছে স্থানীয় জমি মাফিয়ারা। সেই লক্ষ্যেই গত শনিবার রাত ৩:৩০ নাগাদ রামকৃষ্ণ মিশনের একটি বাড়িতে প্রায় জনা ত্রিশেক দুষ্কৃতী হানা দেয়। বাড়ির ভেতর ঢুকে কর্মীদের মারধর করার পাশাপাশি ৭ জনকে তুলেও নিয়ে যায়। এরপর শহরের নানান এলাকায় তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

ঘটনা নিয়ে যদি কেউ মুখ খোলে তাহলে প্রাণহানির হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে খবর। এরপর ওই একই দলের তত্ত্বাবধানে প্রায় ২০ জন মতো মহিলাকে মিশনের সেবক হাউসে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। জমি দখলের জন্যই এমনটা করা হয়েছিল। তবে পুলিশের চাপে পড়ে সেখান থেকে সরে যেতে হয় তাঁদের।

আরও পড়ুনঃ রড, কাটারি নিয়ে দুষ্কৃতীদের হানা … তারপর? রামকৃষ্ণ মিশন ভবনে সেদিন কী ঘটেছিল? জানালেন মহারাজ

এরপর পুলিশের তরফ থেকে ওই বাড়িটি সিল করে দেওয়া হয়। তবে সেই সিল নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কারণ পুলিশের তরফ থেকে বাড়ি সিল করা হলে সেখানে থানার সিল অথবা সরকারি অশোক স্তম্ভ ব্যবহার করার কথা। তবে তালার ওপর ডি কে স্ট্যাম্প লাগিয়ে সিল করা হয়েছে বলে খবর।

উল্লেখ্য, শিলিগুড়ির চারমাইল অঞ্চলের ৩১ নং জাতীয় সড়কের পাশে এস কে রায় নামের এক ব্যক্তি সেবক হাউস নামের একটি বাড়ি রামকৃষ্ণ মিশনকে দান করে গিয়েছিলেন। প্রায় ২ একর ওই জমির বর্তমান বাজারদর প্রায় ১০০ কোটি টাকা। এবার ওই জমির ওপর নজর পড়েছে জমি মাফিয়াদের। বেলুর মঠকে ওই জমিটি দান করা হয়েছিল। নিয়ম অনুসারে, যে জেলায় ওই বাড়ি সেখানকার রামকৃষ্ণ মিশন ওই বাড়িটির দায়িত্ব নেবে। সেই অনুসারে সেবক হাউসের দায়িত্ব ছিল জলপাইগুড়ির রামকৃষ্ণ মিশনের কাঁধে। এবার এই বাড়ির ওপরেই জমি মাফিয়াদের নজর পড়েছে বলে খবর।

Jalpaiguri Ramkrishna Mission Ashram attack saint narrates horror story of that night

পুলিশের করা সিলের পাশাপাশি আরও বেশ কিছু জিনিস নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। জানা যাচ্ছে, ভূমি সংস্কার দফতর থেকে প্রোমোটার একটি নথি বের করেছে। শুধু তাই নয়, ওই বাড়িটি থেকে রামকৃষ্ণ মিশনের ফলকনামাও খুলে নিয়ে গিয়েছে হামলাকারীরা। জমি মাফিয়াদের তরফ থেকে এর আগেও রামকৃষ্ণ মিশনকে হুমকি দিয়েছিল। থানায় এই বিষয়ে জানানো হলেও সুরাহা হয়নি বলে খবর।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর