টাইমলাইনটাকা-কড়িভারত

মমতা ব্যানার্জির প্রস্তাবিত কৃষান রেল চালু করছে মোদি সরকার,  দুঃসময়ে লাভের মুখ দেখবেন কৃষকরা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রেলমন্ত্রী থাকাকালীন মমতা ব্যানার্জি  (mamata banerjee) প্রথম কৃষান রেল (krishan rail) চালুর প্রস্তাব করেছিলেন। এক দশক পেরিয়ে সেই কৃষান রেল চালু করল মোদি সরকার (modi government) ।  এর ফলে করোনার এই খারাপ সময়ে আর্থিক লাভের মুখ দেখবে দেশের কৃষকরা।

২০০৯-১০ সালে রেলমন্ত্রী থাকাকালীন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি প্রথম কৃষান রেলের প্রস্তাব করেন। যে সব সব্জি ও ফলে তাড়াতাড়ি পচন ধরে সেগুলি অল্প সময়ে দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই বিশেষ শীততাপ নিয়ন্ত্রিত ট্রেনের প্রস্তাব করেছিলেনভ বাংলার বর্তমান  মুখ্যমন্ত্রী।

আজ এক দশকের বেশী সময় পরে সেই ট্রেন চলতে শুরু করেছে দেশে৷ আজ থেকে  প্রথম কৃষান ট্রেন চলবে মহারাষ্ট্রের দেবলালি থেকে বিহারের দানাপুর পর্যন্ত। গত ফেব্রুয়ারি মাসে বাজেট পেশের সময় এই ট্রেন চালানোর কথা বলেছিলেন মোদি সরকারের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

আজ সকাল ১১ টায় দেবাললি থেকে ছেড়েছে এই ট্রেনটি। ১৫১৯ কিমি রাস্তা পাড়ি দিয়ে ৩২ ঘণ্টার সফর শেষ করে কাল সন্ধ্যে সাতটা নাগাদ দানাপুর পৌঁছবে দেশের প্রথম কৃষান ট্রেন। মহারাষ্ট্রের নাসিক ও সংলগ্ন এলাকাগুলিতে উৎপাদিত ফল ও সব্জি মনমাড়, জলগাও, ভুসাবল, বুরহানপুর, খন্ডবা, ইটারসি, জবলপুর, সতনা, কটনি, মণিকপুর, প্রয়াগরাজ, ছৌকি, দীনদয়াল উপাধ্যায় সহ একাধিক স্থানে পৌঁছে দেবে এই ট্রেন।

জানা যাচ্ছে,  এই ট্রেনটি সম্পূর্ণ ভাবে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত।  এতে সব্জি, ফল, ফুল সহ পচনশীল বিভিন্ন কৃষি দ্রব্য পৌঁছে যাবে দেশের এক স্থান থেকে অন্যস্থানে।

Back to top button
Close