টাইমলাইনভারত

ধার্মিক মৌলবাদের বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠার কামনায় ভগবান রামের নামে প্রদীপ তৈরি করছেন মুসলিম মহিলারা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ একদিকে যেমন ইসলামিক কট্টরপন্থীদের জন্য গোটা বিশ্বের সমস্যা দিনদিন বেড়ে চলেছে, তেমনই আরেকদিকে ধর্মের নগর হিসেবে পরিচিত কাশীতে মুসলিম মহিলারা দীপাবলি উপলক্ষে ভগবান রামের নাম প্রদীপ বানিয়ে কট্টরপন্থার বিরুদ্ধে আশার আলো জ্বালানোর অভিযান শুরু করলেন। হিন্দু মহিলাদের সাথে সাথে মুসলিম মহিলারা ভগবান রামকে নিজেদের পূর্বপুরুষ মেনে নিয়ে দীপাবলির অবসরে রাম নামের প্রদীপ জ্বালিয়ে ধার্মিক কট্টরপন্থা আর চীনের সামগ্রীর বিরুদ্ধে বয়কট অভিযান সফল করার আশায় রয়েছেন।

একদিকে ইসলামিক কট্টরপন্থার কারণে বিশ্বের অনেক দেশেই অস্থিরতা আর আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। আরেকদিকে, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উদাহরণের জন্য বিখ্যাত ধর্মের নগর কাশী ভ্রাতৃত্ব বোধের বার্তা দিতে এই বছর দীপাবলিতে ভগবান রামের নামে প্রদীপ জ্বালানো সংকল্প নিয়েছেন মুসলিম মহিলারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সংসদীয় এলাকা বারাণসীর মুন্সি প্রেমচন্দ্র গ্রামের লমহিতে মুসলিম মহিলা ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে আজকাল বিশেষ প্রস্তুতি দেখা যাচ্ছে। সেখানে শুধু হিন্দুরাই না, মুসলিম মহিলারাও রাম নামের প্রদীপ জ্বালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

মাটি আর গোবর দিয়ে প্রদীপ তৈরি করা হচ্ছে, এরপর সেটির উপর সুন্দর ভাবে রঙ দিয়ে নকশা করা হচ্ছে আর ভগবান রামের নাম লেখা হচ্ছে। ভগবান রামের নামে এই প্রদীপ গুলো তৈরি করা নিয়ে মুসলিম মহিলা ফাউন্ডেশনের রাষ্ট্রীয় স্বভাপতি নাজনিন আনসারি বলেন, এই সময় গোটা বিশ্ব ইসলামিক কট্টরপন্থার কারণে আতঙ্কে আছে। আর সেই কারণে মৌলবাদীদের অন্ধকারকে ঘোচাতে আদর্শ পূর্বপুরুষ ভগবান রামের নামে দীপাবলিতে প্রদীপ তৈরি করে সেগুলো মানুষের মধ্যে বিতরণ করবেন।

ফাউন্ডেশনের আরেক মুসলিম মহিলা সদস্যা বলেন, আমি একদিকে যেমন মুসলিম, আরেকদিকে গর্বিত ভারতীয়। আর ভগবান রাম আমার পূর্বপুরুষ। এই কারণে এই দীপাবলিতে ভগবান রামের নামে প্রদীপ জ্বালাতে আমার কোনও অসুবিধে নেই।

Back to top button