টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

নন্দীগ্রামে মমতার সফরের আগেই পড়ল চাঞ্চল্যকর পোস্টার! চাপে তৃণমূল নেতৃত্ব

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ জানুয়ারি মাসে নন্দীগ্রামে সভার দিনে নিজেকে নন্দীগ্রাম বিধানসভা আসনের প্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই প্রতিশ্রুতি পালন করে গত শুক্রবার আনুষ্ঠানিক ভাবে নন্দীগ্রামে প্রার্থী হিসেবে নিজের নাম ঘোষণা করেন তৃণমূল নেত্রী। ওনার ঘোষণার পরেই একুশের নির্বাচনে রাজ্যের সবথেকে হাইভোল্টেজ লড়াই হতে চলেছে নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে। কারণ এই আসনে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোমুখি হচ্ছেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী।

আজ নন্দীগ্রাম আসনে নিজের নাম ঘোষণার পর আজ সেখানে পা রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামীকাল এই আসন থেকে মনোনয়ন দাখিল করবেন তৃণমূল নেত্রী। তবে ওনার সফরের আগেই নন্দীগ্রামে পড়ল চাঞ্চল্যকর পোস্টার। সেই পোস্টারে লেখা নন্দীগ্রাম কোনও বহিরাগত নয়, নিজের মাটির মানুষকেই প্রার্থী হিসেবে চায়।

নন্দীগ্রামে প্রচার চালাতে একটি বাড়িও ভাড়া নেওয়া হয়েছে। প্রাক্তন সেনা কর্মী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বাড়ি ভাড়া দিতে পেরে বেজায় খুশি। তিনি জানিয়েছেন, মনে হচ্ছে স্বয়ং ভগবান এসে উপস্থিত হয়েছেন আমার বাড়িতে। আজ নন্দীগ্রামে দলীয় কর্মীসভায় অংশ নিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। দুপুরে হেলিকপ্টার করে নন্দীগ্রামের মাটিতে পা রাখছেন তৃণমূল নেত্রী। ওনার হেলিকপ্টার ল্যান্ডের জন্য বানানো হয়েছে হেলিপ্যাডও। চারিদিকে ওনার আগমন ঘিরে চরম উন্মাদনা। কিন্তু সেই উন্মাদনায় বাধ সেধেছে বিতর্কিত পোস্টার।

গতকাল সন্ধ্যের দিকে ক্ষুদিরাম মোড়ের বাস স্ট্যান্ডের কাছে এই পোস্টার নজরে আসে সবার। আর এরপরই এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ওই পোস্টারে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘বহিরাগত” বলে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। গোটা রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারে একদিকে যখন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদী-শাহ-নাড্ডাদের বহিরাগত তকমা দিয়েছেন, তখন আরেকদিকে ওনার বিরুদ্ধে বহিরাগত পোস্টার পড়ায় চাপে তৃণমূল নেতৃত্ব।

Back to top button