ফ্লাইট ক্যান্সেল হলে টিকিটের সম্পূর্ণ টাকা রিফান্ড, সঙ্গে মিলবে ফ্রি খাবারও! নয়া নিয়ম আনল সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: যত সময় গেছে ততই উন্নত হয়েছে বিজ্ঞান। আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সব ক্ষেত্রে এসেছে আধুনিকতার ছোঁয়া। বিশেষ করে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটেছে পরিবহন ক্ষেত্রে। বর্তমানে ট্রেন বা প্লেনের সাহায্যে আমরা অতি দ্রুত এক স্থান থেকে অন্য স্থানে চলে যেতে পারি। আপনিও যদি নিয়মিত বিমানে চলাফেরা করেন তাহলে রয়েছে দারুন সুখবর।

   

আপনি যদি ফ্লাইটের টিকিট বুক করেন এবং কোনও কারণবশত সেই ফ্লাইট ক্যানসেল হয় বা বিলম্বিত হয় তাহলে ফেরত পাবেন টিকিটের টাকা। ফ্লাইট যাত্রীদের টিকিট বাতিল বা বিলম্বের ক্ষেত্রে সরকার যাত্রীদের অধিকার সম্পর্কে স্পষ্ট অবস্থান নিয়েছে। সম্প্রতি যাত্রীদের অধিকার সম্পর্কে জানাতে কিছু নিয়ম শেয়ার করেছেন ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল এভিয়েন্স।

আরোও পড়ুন : ইন্টারভিউ পাশেই কলকাতা পুরসভায় চাকরি! দেখুন, কোন পদের জন্য কী যোগ্যতার প্রয়োজন

এই নিয়ম সম্পর্কে সম্প্রতি জানিয়েছেন বেসামরিক প্রতিমন্ত্রী জেনারেল ভি কে সিং। মন্ত্রী জানিয়েছেন, সংস্থা যদি ফ্লাইট ক্যান্সেল করে তাহলে যাত্রীদের জন্য অন্য বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে নয়ত যাত্রীদের ভাড়ার টাকা ফেরত দিতে হবে। পাশাপাশি যাত্রীদের দিতে হবে অতিরিক্ত ক্ষতিপূরণ। ফলে যাত্রীদের জন্য এটা নিঃসন্দেহে ভালো খবর।

আরোও পড়ুন : ভাইয়ের সঙ্গে বিয়ে দিতে চেয়েছিল বাবা, পালিয়ে এয়ারফোর্সে দেন যোগ! কাঁদিয়ে দেবে হামনার কাহিনী

পাশাপাশি দ্বিতীয় ফ্লাইটের ব্যবস্থার মাঝের যে অপেক্ষমান সময়, সেই সময়টাতে যাত্রীদের বিনামূল্যে খাবার ও রিফ্রেশমেন্ট এর ব্যবস্থা করতে হবে। দুই থেকে পাঁচ ঘন্টা ফ্লাইট দেরি করলে যাত্রীদের বিনামূল্যে খাবার দেওয়া হবে। যদি ফ্লাইট তিন ঘন্টার বেশি বিলম্ব করে তাহলে যাত্রীদের রিফ্রেশমেন্ট এর ব্যবস্থা করতে হবে সংস্থার পক্ষ থেকে।

flight

যদি ফ্লাইট ছ ঘন্টা বিলম্বিত হয় তাহলে সেক্ষেত্রে যাত্রার সময়ের ২৪ ঘন্টা আগে যাত্রীকে জানাতে হবে এবং দ্বিতীয় ফ্লাইটের অপশন দিতে হবে। বিমান পরিবহন মন্ত্রকের নিয়ম অনুযায়ী যাত্রীর জন্য বিকল্প বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে নয়ত পুরো টাকা জরিমানা সহ ফেরত দিতে হবে। তবে খবর প্রকাশ্যে আসার পরে সাধারণ মানুষের মুখে চওড়া হাসি ফুটেছে।