টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

‘আমি কাকে ভালবাসব সেটা আমার ব‍্যক্তিগত ব‍্যাপার’, ‘লাভ জিহাদ’ নিয়ে বিজেপিকে তীব্র কটাক্ষ নুসরতের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অভিনয়ের সঙ্গে সঙ্গে সাংসদের দায়িত্ব দুটোই কিভাবে সমান তালে সামলাতে হয় তা এতদিনে ভালই বুঝে গিয়েছেন তৃণমূল (tmc) সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরত জাহান (nusrat jahan)। শুটিং বা হট ফটোশুট হোক কিংবা সভামঞ্চে তীক্ষ্ণ রাজনৈতিক বক্তৃতা দুদিকই দিব‍্যি সামলাচ্ছেন তিনি।

এবার ফের ‘লাভ জিহাদ’ (love jihad) ইস‍্যুতে বিজেপির (bjp) উদ্দেশে কটাক্ষ বাণ নিক্ষেপ করলেন নুসরত। বেশ কিছুদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কয়েকটি ‘লাভ জিহাদ’ এর ঘটনা ঘিরে তোলপাড় হয়েছে দেশ। লাভ জিহাদ রুখতে তৎপর হতে দেখা গিয়েছে বেশ কয়েকটি বিজেপি রাজ‍্যকেও। এমনকি এর জন‍্য বিশেষ আইন প্রনয়ণেরও ব‍্যবস্থা করতে চলেছে যোগী সরকার। এই প্রসঙ্গেই এবার সরব হলেন নুসরত।


শনিবার কলকাতার এক জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনে এসেছিলেন তৃণমূলের এই সাংসদ অভিনেত্রী। সেখানেই বিজেপিকে উদ্দেশ‍্য করে তিনি মন্তব‍্য করেন, ‘লাভ ও জিহাদ কখনো এক হতে পারে না। আমি কাকে ভালবাসব না বাসব সেটা সম্পূর্ণ আমার ব‍্যক্তিগত ব‍্যাপার। বিজেপিকে আমি পরামর্শ দেব ভালবাসা যে ব‍্যক্তিগত সেটা তারা আগে বুঝুক। তাদেরও ভালবাসতে শেখা উচিত।’

দু বছর আগে ঘনিষ্ঠ বন্ধু নিখিল জৈনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন নুসরত জাহান। হেভিওয়েট বিয়ে সেরে সিঁথিতে সিঁদুর, হাতে চূড়া পরে নববিবাহিতা হিন্দু বধূর মতোই সংসদে প্রথম বক্তৃতা দেন তিনি। ভিডিও প্রকাশ‍্যে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে হিন্দুত্ববাদী ও মৌলবাদীরা। ভিন্ন ধর্মের হয়ে হিন্দুদের মতো সাজ কেন? সিঁথিতে সিঁদুর কেন? ওঠে একাধিক প্রশ্ন। কিন্তু পাত্তা দেননি নুসরত।

এমনকি এখনো মাঝে মাঝেই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হতে হয় নুসরতকে। অষ্টমীর অঞ্জলি দেওয়া থেকে শুরু করে বিজয়া দশমীতে শুভেচ্ছা জানানো সবেতেই কটাক্ষ উড়ে এসেছে তাঁর দিকে। তবে প্রতিবারের মতো নুসরত এবারেও কোনো আলোচনা সমালোচনারই কোনো জবাব দেননি।

তাঁর কথায়, “আমি মাজারে গেলে কোনো সংবাদ মাধ‍্যম তা প্রচার করে না। কিন্তু হিন্দু অনুষ্ঠানে গেলেই সমালোচনা। আমি বাঙালি মুসলমান পরিবারের মেয়ে। কিন্তু আমি ধর্মনিরপেক্ষ। আমি সর্বপ্রথমে একজন বাঙালি। আর আমি ধর্মনিরপেক্ষ ভাবে ভালবাসতে পারি।”

Back to top button