আস্থা নেই রাহুলে, কংগ্রেস ছেড়ে বিজপিতে যোগ অলিম্পিকে পদকজয়ী বক্সারের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচনের (Lok Sabha Election 2024) আগে বড়সড় ধাক্কা খেল হাত শিবির। দল ছাড়ল কংগ্রেসের অন্যতম সেরা প্রার্থী। কেবল দল ছাড়লেন তাই নয়, সোজা গিয়ে নাম লেখাল বিরোধী শিবিরে। তিনি হলেন অলিম্পিক পদকজয়ী বক্সার বিজেন্দর সিং (Vijender Singh)। যে কী না গত মঙ্গলবারও BJP-র সমালোচনায় সরব হয়েছিলেন। চব্বিশ ঘন্টা কাটার আগেই দল বদলে নাম লেখালেন গেরুয়া শিবিরে।

   

নির্বাচনের আগে দলবদলের ঘটনা কোনও নতুন বিষয় নয়। তবে এককালীন বিজেপি বিরোধী বিজেন্দর সিং যে কোনোদিন পদ্মশিবিরে নাম লেখাতে পারে একথা ভাবনারও অতীত। গত বছরই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কুস্তিগীরদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। সেই সময় একের পর এক তোপ দেগেছিলেন বিজেপির বিরুদ্ধে। কিন্তু ভোটের মরশুম আসেতে সেই তিনিই কিনা ১৮০ ডিগ্রি ইউটার্ন নিয়ে বিজেপির হয়ে ভোটে লড়বেন!

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে কংগ্রেস পার্টির হয়ে ভোট লড়াই করেন বক্সার। কংগ্রেস তাকে টিকিট দেয় দক্ষিণ দিল্লি লোকসভা কেন্দ্রে। কিন্তু বিজেপির রমেশ বিধুরির কাছে পরাজয় স্বীকার করতে হয় তাকে। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে যে, এবার মথুরা থেকে তাকে প্রার্থী হিসেবে লড়ানোর পরিকল্পনা ছিল কংগ্রেসের। মথুরার জাঠ ভোটব্যাংক দখল করা ছিল লক্ষ্য, কিন্তু সেই পরিকল্পনায় একেবারে জল ঢেলে দিলেন বিজেন্দর।

আরও পড়ুন : নজরে হ্যাট্রিক! দিল্লিকে হোয়াইট ওয়াশ করতে বিরাট বদল KKR-এ, প্রথম একাদশে বড় চমক

উল্লেখ্য এই জাঠ ভোট হরিয়ানা তো বটেই, সেই সাথে পশ্চিম উত্তরপ্রদেশেও বড় ফ্যাক্টর। আর তাই কংগ্রেসের পছন্দের প্রার্থী ছিলেন বক্সার বিজেন্দর। তবে তার আগে সমস্ত প্ল্যান বানচাল করে দিয়ে বিজেপি জয়েন করলেন তিনি। এদিকে এর আগে কুস্তিগিরদের ধর্নায় নামেন তিনি। সেখানে বেশ বড় বড় কথা বলেছিলেন বক্সার। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধেও তোপ দাগতে পিছপা হননি তিনি।

আরও পড়ুন : চেন্নাইয়ের শিরে সংক্রান্তি, ম্যাচ ছেড়ে বাংলাদেশ ছুটলেন মুস্তাফিজুর, অথৈ জলে CSK

image 20240403 180839 0000

বিজেন্দর প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বলেছিলেন, “যখন আমরা পদক জিতে ফিরে ফিরি তখন সাতদিনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী আমাদের বাড়িতে ডেকে চা খাওয়ান, ছবি তোলেন। কিন্তু আজ পদকজয়ীরা প্রতিবাদ করছেন, পদক ফেলে দিতে চাইছেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী একবারও বলেননি যে পদক ফেলবেন না।” কিন্তু রাজনীতির চক্রব্যুহে পা দিয়ে সেই তাকেই বিজেপিতে যোগ দিতে হয়েছে। এখন দেখার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি তাকে টিকিট দেয় কিনা।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর