চিনকে রুখতে ‘মাস্টারস্ট্রোক’ ভারতের, লাল সেনার চিন্তা বাড়িয়ে অরুণাচলে বড় পদক্ষেপ মোদীর

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক : দেশে ফের কোনোরকম অস্থিরতা তৈরি হোক সেটা মোটেও মঞ্জুর নয় কেন্দ্রীয় সরকারের। আর তাই তো চিন সীমান্ত (China Border) নিয়ে একটার পর একটা বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছে সরকার। ইতিমধ্যেই ১০ হাজার অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন নিয়ে শুরু হয়ে গেছে হইহই। সেই ঝটকা সামলাতে না সামলাতেই এবার শোনা গেল, চিন সীমান্তে নয়া সুড়ঙ্গপথ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

সূত্রের খবর, শনিবার একদিনের অরুনাচল সফরে গিয়ে চিন সীমান্তবর্তী সেলা গিরিপথের দ্বিতীয় সুড়ঙ্গটির উদ্বোধন করবেন নমো। ১৩ হাজার ফুট উচ্চতায় নির্মিত এই সুড়ঙ্গ নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। ভারতীয় সেনা এই সুড়ঙ্গের মাধ্যমে যে কোনও মরশুমে তাওয়াংয়ের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলএসি)-র কাছে পৌঁছতে পারবে।

আসলে গালওয়ানকাণ্ডের পর আর কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চাইছেনা নয়াদিল্লি। লাদাখ, সিকিম, অরুণাচল প্রদেশে লাল সেনার আগ্রাসন রুখতে অতিরিক্ত সেনার পাশাপাশি পরিকাঠামো উন্নয়নের দিকেও মনোনিবেশ করেছে নয়া দিল্লি। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শুরু হয়েছে সড়ক, সুড়ঙ্গ এবং রেলপথ নির্মাণের কাজ। আসলে যে কোনও জরুরি পরিস্থিতিতে সেনার কাছে পৌঁছানোর জন্য রাস্তা যাতে কোনোভাবেই বাধা হয়ে না দাঁড়ায় তার জন্য সবরকম প্রস্তুত থাকতে চাইছে নয়া দিল্লি।

আরও পড়ুন : ৯৫ বছরের পুরনো, রয়েছে ব্রিটিশ যোগ! বাংলার এই হারিয়ে যাওয়া রেল স্টেশন ফের চালুর পথে রেল

sela 1709960976478 1709960984305

এই প্রকল্পেরই একটা অংশ হল সেলা গিরিপথের এই দু’টি সুড়ঙ্গ। যার প্রথম সুড়ঙ্গটির দৈর্ঘ্য হল ১০০৩ মিটার এবং দ্বিতীয় সুড়ঙ্গটির দৈর্ঘ্য হল ১৫৯৫ মিটার। এই দ্বিতীয় সুড়ঙ্গটি নির্মাণে মোট খরচ হয়েছে প্রায় ৮২৫ কোটি টাকা। পাশাপাশি ৮ কিলোমিটারেরও বেশি দৈর্ঘ্যের একটি সড়কও তৈরি করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা, চিন সংলগ্ন অরুণাচল প্রদেশের এই টানেলটি একটা গেম চেঞ্জার হিসেবে প্রমাণিত হবে।

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর