কারুর পৌষমাস কারুর সর্বনাশ, নিজের ছবি হিট, ডুবলেন আমির! লাল সিং নিয়ে বিষ্ফোরক মাধবন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: করোনা (Corona) বদলে দিয়েছে অনেক কিছুই। দু বছর আগে আসা মহামারির প্রকোপ গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছে। প্রভাবিত হয়েছে সব ক্ষেত্রই। বিনোদন জগতেও সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়েছে। কিন্তু এখানে চিত্রটা বেশ অন‍্য রকম। করোনার পর বলিউডের (Bollywood) সাফল‍্য যখন নিম্নগামী, দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে তখন নতুন সূর্যোদয় হয়েছে।

   

গত দু বছরে কটা হিন্দি ছবি হিট হয়েছে তা হাতে গুণে বলে দেওয়া যাবে। অনেকে বলছেন, এটাই বলিউডের শেষের শুরু। অদ্ভূত ভাবে হিন্দি ছবির তারকারা দক্ষিণী সিনেমায় অভিনয় করলে সেই ছবি হিট হচ্ছে। কিন্তু দক্ষিণী তারকারা হিন্দিতে ডেবিউ করলেও সে ছবি ফ্লপ। দর্শকরা বেছে বেছে বলিউডকেই বয়কট করছেন।


‘লাল সিং চাড্ডা’র (Laal Singh Chaddha) পরিণতি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে বলিউডের মাথার উপরে ঝুলতে থাকা ফাঁড়া। আমির খানের (Aamir Khan) ছবির এই দশা হবে তা ভাবতে পারেনি অনেকেই। বলিউডের যারা যারাই লাল সিং চাড্ডার পাশে দাঁড়িয়েছেন সকলেই নেটনাগরিকদের রোষের মুখে পড়েছেন। এবার এই ইস‍্যু নিয়ে মুখ খুললেন আর মাধবন (R Madhavan)।

মাস খানেক আগে মুক্তি পেয়েছে মাধবন অভিনীত ‘রকেট্রি: দ‍্য নাম্বি এফেক্ট’। পরিশ্রমের ফল পেয়েছেন অভিনেতা। দর্শকরা অঢেল ভালবাসা দিয়েছে ছবিটিকে। অথচ তাঁরই দুই ছবির সহ অভিনেতার ছবি ধুঁকছে বক্স অফিসে। কেন ফ্লপ হল লাল সিং চাড্ডা?

নিজের আসন্ন ছবি ‘ধোকা- রাউন্ড ডি কর্নার’ এর টিজার লঞ্চ অনুষ্ঠানে এই প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছিলেন মাধবন। উত্তরে তিনি বলেন, “আমরা যদি জানতাম কারণটা তাহলে তো সবাই হিট ছবি বানাতাম। কেউ ছবি বানানোর সময়ে এটা ভাবে না যে খারাপ ছবি তৈরি হচ্ছে। যে কঠোর পরিশ্রম লাগে সেটা সব ছবির ক্ষেত্রেই এক। তাই যত বড় ছবিই মুক্তি পেয়েছে, সবকটির উদ্দেশ‍্যই ছিল একটা ভাল ছবি বানানো।”


মাধবনের রকেট্রিতে একটি ক‍্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শাহরুখ খান। লাল সিং চাড্ডাতেও ক‍্যামিও করেছেন তিনি। তাহলে দুই ছবির মধ‍্যে এমন তারতম‍্য কেন? মাধবন বলেন, “আমার মতে সবথেকে বড় পার্থক‍্য ছিল যে আমার ছবিটা বায়োপিক ছিল। তাই সেটা যেকোনো সময়েই হিট করে যেতে পারত, করোনার আগেই হোক বা পরে।”

মাধবন আরো বলেন, এটা সবাইকেই মাথায় রাখতে হবে করোনা পরবর্তী দর্শক কিন্তু আলাদা। তাদের দৃষ্টিভঙ্গি, সিনেমার প্রতি পছন্দ আলাদা। কারণ দীর্ঘ লকডাউনে গোটা বিশ্বের চলচ্চিত্রের সঙ্গে পরিচিত হয়েছে দর্শক। তাই তাদের পছন্দটা বুঝে তারপর ছবি বানালে তা হিট হবে বলে মত অভিনেতার।

সম্পর্কিত খবর