এবার নতুন রেশন কার্ড তৈরি হবে মাত্র কয়েক মিনিটেই! অবাক লাগছে? দেখে রাখুন নয়া পদ্ধতি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : প্রত্যেক ভারতবাসীর কাছে রেশন কার্ড অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি নথি। রেশন কার্ডের মাধ্যমে ভর্তুকিতে খাদ্যশস্য পাওয়া যায় সরকারের তরফ থেকে। রেশন কার্ডের মাধ্যমে নিম্নবিত্ত শ্রেণীর মানুষের একাধিক সুবিধা ভোগ করে থাকেন। তবে এখনো যাদের রেশন কার্ড তৈরি হয়নি তাদের জন্য রয়েছে সুখবর।

   

বাড়ি বসেই খুব অল্প সময়ের মধ্যে আপনারা রেশন কার্ড তৈরি করে ফেলতে পারবেন। রেশন কার্ড তৈরির জন্য আপনাদের কোথাও যেতে হবে না। আপনি নিজেই মোবাইলের মাধ্যমে আবেদন জানাতে পারবেন রেশন কার্ডের জন্য। আপনি যে রাজ্যে বসবাস করেন সেই রাজ্যের অনলাইন পোর্টালে ভিজিট করতে হবে ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি করার জন্য। এক নজরে আমরা সেই পদ্ধতি একবার দেখে নেব:

আরোও পড়ুন : এগিয়ে আসছে মাধ্যমিক! তার আগেই ১৪ দফা প্রশ্নমালা সাজিয়ে এক্কেবারে রেডি পর্ষদ

রেশন কার্ড তৈরির জন্য ভিজিট করুন https://nfsa.up.gov.in/Food/citizen/Default.aspx। এরপর নাম, ঠিকানার মতো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে ফিলাপ করুন আবেদন পত্র। এরপর আপলোড করতে হবে প্রয়োজনীয় নথি। আধার কার্ড, ভোটার আইডি, বিদ্যুৎ বিল বা জলের বিল নথি হিসেবে আপলোড করা যায়। এরপর আপনাদের দিতে হবে আবেদন মূল্য।

আরোও পড়ুন : এবার মহাকাশে হবে ধামাকা! ইলন মাস্কের সাথে হাত মিলিয়ে মাঠে নামছে ISRO, হবে গুরুত্বপূর্ণ মিশন

তারপর সাবমিট অপশন এ ক্লিক করে আপনাদের আবেদন পত্র জমা করতে হবে। এরপর সরকারের তরফে আপনার আবেদন পত্র যাচাই করে দেখা হবে। যদি আপনি যোগ্য হন তাহলে খুব দ্রুত আপনার নামে ইস্যু করা হবে রেশন কার্ড। আধার কার্ড/ভোটার আইডি কার্ড, বিদ্যুৎ বিল বা ইউটিলিটি বিল ব্যবহার করা যেতে পারে ঠিকানা প্রমাণ পত্রের জন্য।

ration card online

এছাড়াও থাকতে হবে আপনার আয়ের শংসাপত্র। রেশন কার্ড ব্যবহার করে উপভোক্তা একাধিক সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। রেশন কার্ডের মাধ্যমে সরকারি প্রকল্পের সুবিধা নেওয়া যায়। কম দামে রেশন দোকান থেকে কেনা যায় খাদ্যশস্য। উৎসব বা মহামারীর সময় বিনামূল্যে খাদ্যশস্য পাওয়া যায় সরকারের তরফ থেকে।