টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

চলতি বছরের প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হলেন আবদেল ফতহ! তাঁর পরিচয় অবাক করবে সবাইকে

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বৃহস্পতিবার দেশজুড়ে মহাসমারোহে পালিত হচ্ছে ৭৪ তম প্রজাতন্ত্র দিবস (Republic Day)। এমতাবস্থায়, আমাদের দেশে প্রজাতন্ত্র দিবসে বিদেশি অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো একটি ঐতিহ্য হয়ে উঠেছে। সেই রেশ বজায় রেখেই এবারের প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকলেন মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফতহ এল-সিসি (Egyptian President Abdel Fateh El-Sisi)।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রতি বছর প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে কর্তব্য পথ (পূর্বে রাজপথ) থেকে লালকেল্লা পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষ ভারতের গৌরবময় সাফল্য ও ঐতিহ্যের মুহূর্তগুলিকে প্রত্যক্ষ করতে সমবেত হন। ওই অনুষ্ঠানে দেশের প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি ছাড়াও একাধিক বিশেষ অতিথি উপস্থিত থাকেন। মূলত, এই অনুষ্ঠানটিতেই অন্যান্য দেশের অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়।

আবদেল ফতহ আল-সিসির পরিচয়: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, এই প্রথম মিশর থেকে কেউ প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নিলেন। শুধু তাই নয় জানা গিয়েছে, চলতি বছরের প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে মিশরীয় সেনাবাহিনীর কন্টিনজেন্ট এবং তার ব্যান্ডও অংশ নেবে। এই প্রসঙ্গে মিশরে ভারতের রাষ্ট্রদূত অজিত গুপ্ত এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে, মিশরের রাষ্ট্রপতির ভারত সফর উভয় দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণিত হবে।

এছাড়াও, এই সফর দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের নতুন সূচনা করবে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য যে, করোনার কারণে গত দু’বছর যাবৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে কোনো প্রধান অতিথি আসতে পারেননি। এদিকে, ৬৮ বছর বয়সী আবদেল ফতহ আল-সিসি ১৯৫৪ সালের ১৯ নভেম্বর কায়রোর গামলেয়া এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। এল-সিসি মিশরের ষোড়শ রাষ্ট্রপতি।

1674631995 sisi modi

২০১৪ সালে তিনি প্রথমবারের মতো শপথ নেন। এরপর ২০১৮ সালে ফের ক্ষমতায় আসেন তিনি। প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে আল-সিসি মিশরীয় সেনাবাহিনীর প্রধান ছিলেন। পাশাপাশি, তিনি ২০১২-১৩ সাল পর্যন্ত মিশরের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ছিলেন এবং তারপর ২০১৩ ও ২০১৪ সালে তিনি মিশরের উপ-প্রধানমন্ত্রীও ছিলেন। ২০১৩ সালের জুলাই মাসে তিনি মিশরের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেন এবং এক বছর পরে নিজেই রাষ্ট্রপতি হন।

Related Articles