ক্রেডিট-ডেবিট কার্ড নিয়মে বড়সড় বদল আনল RBI, প্রভাব পড়বে সবার উপরেই

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ক্রেডিট কার্ড (Credit Card) এবং ডেবিট কার্ড (Debit Card) ব্যবহারকারীদের জন্য, আগামী মাসের প্রথম দিন অর্থাৎ ১ অক্টোবর থেকেই কিছু নিয়ম পরিবর্তন হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কার্ড-অন-ফাইল টোকেনাইজেশন (CoF Card Tokenization) নিয়ম ১ অক্টোবর থেকে কার্যকর হতে চলেছে। এমতাবস্থায়, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে যে, টোকেনাইজেশন সিস্টেম বাস্তবায়নের পরে ব্যবহারকারীদের পেমেন্ট সংক্রান্ত অভিজ্ঞতা আরও ভালো হবে। সর্বোপরি, ডেবিট কার্ড এবং ক্রেডিট কার্ডের লেনদেন আগের থেকে আরও নিরাপদ হয়ে উঠবে বলেও জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই কার্ডের টোকেনাইজেশনের জন্য ব্যাঙ্ক থেকে বার্তা পেতে শুরু করেছেন ব্যবহারকারীরা। এমন পরিস্থিতিতে সকলের মনে প্রশ্ন উঠছে এই কার্ড টোকেনাইজেশন আসলে কি? পাশাপাশি, এটির সুবিধা-অসুবিধা সম্পর্কেও বিস্তারিত জানেন না অনেকেই। এমতাবস্থায়, বর্তমান প্রতিবেদনে সেই প্রসঙ্গটি তুলে ধরা হল।

   

টোকেনাইজেশন না করলে কি হবে: মূলত, নতুন নিয়ম কার্যকর হওয়ার পরে, গ্রাহকরা যখনই পয়েন্ট অফ সেল মেশিনগুলি ব্যবহার করে ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ড দিয়ে অনলাইনে বা কোনো অ্যাপে অর্থ প্রদান করবেন, সেক্ষেত্রে তাঁদের কার্ডের বিবরণ এনক্রিপ্ট করা টোকেন আকারে সংরক্ষণ করা হবে। এর আগে ১ জানুয়ারি থেকে এই নিয়ম কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। যদিও, পরবর্তীকালে বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারদের কাছ থেকে প্রাপ্ত পরামর্শগুলি বিবেচনা করে, RBI কার্ড-অন-ফাইল ডেটা সংরক্ষণের সময়সীমা ২০২১-এর ৩১ ডিসেম্বর থেকে ২০২২-এর ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়িয়ে দেয়। পরে আবার তা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এমতাবস্থায়, এখন আর এই সময়সীমা বাড়ানোর কথা ভাবছে না রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। অর্থাৎ, এখন পেমেন্ট সংস্থাগুলিকে ৩০ সেপ্টেম্বরের পরে গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ডের ডেটা মুছে ফেলতে হবে। সহজ কথায়, আপনি যদি কার্ড টোকেনাইজেশন না করেন, সেক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম এবং ই-কমার্স ওয়েবসাইটে সেভ থাকা কার্ড দিয়ে অর্থপ্রদান করতে পারবেন না।

নতুন নিয়মে এসব সুবিধা পাবেন: অধিকাংশ বড় ব্যবসায়ী ইতিমধ্যেই রিজার্ভ ব্যাঙ্কের টোকেনাইজেশনের নতুন নিয়ম গ্রহণ করেছেন। এখনও পর্যন্ত, ডেবিট কার্ড এবং ক্রেডিট কার্ডের পরিবর্তে গ্রাহকদের ১৯৫ কোটি টোকেন দেওয়া হয়েছে। যদিও, এখনও অনেকেই তাঁদের কার্ড টোকেনাইজ করেননি। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, এই নতুন নিয়মের অধীনে, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক পেমেন্ট সংস্থাগুলিকে গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ডের ডেটা সংরক্ষণ করতে বারণ করেছে। এর ফলে পেমেন্ট কোম্পানিগুলিকে এখন কার্ডের পরিবর্তে একটি বিকল্প কোড প্রদান করতে হবে। যার নাম হল টোকেন। এই টোকেনগুলো হবে ইউনিক এবং একই টোকেন একাধিক কার্ডের জন্য কাজ করবে। এই নিয়ম কার্যকর হয়ে গেলে, অনলাইন পেমেন্টের জন্য সরাসরি কার্ড ব্যবহার না করে এই ইউনিক টোকেন ব্যবহার করতে হবে।

টোকেনাইজেশনের ফলে জালিয়াতি কমবে: রিজার্ভ ব্যাঙ্ক মনে করছে যে, কার্ডের পরিবর্তে টোকেন দিয়ে অর্থপ্রদানের ব্যবস্থা চালু করা হলে জালিয়াতির ঘটনা কমবে। বর্তমানে ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ডের তথ্য ফাঁসের কারণে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণার ঝুঁকি বেড়ে যায়। তবে, নতুন এই ব্যবস্থায় এহেন প্রতারণার ঘটনা কমবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, বর্তমানে গ্রাহকরা ডেবিট কার্ড এবং ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ই-কমার্স ওয়েবসাইট, মার্চেন্ট স্টোর কিংবা অ্যাপের মাধ্যমে অর্থপ্রদান করার পরে সংশ্লিষ্ট কার্ডের বিবরণ সংরক্ষণ করে রাখেন। এমতাবস্থায়, এই বিবরণ ফাঁস হলে, গ্রাহকদের প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নতুন নিয়মে এই বিপদ কমবে।

কিভাবে আপনার ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড টোকেনাইজ করবেন: কার্ড টোকেনাইজ করার পুরো প্রক্রিয়াটি বেশ সহজ। সম্প্রতি, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পর্কে তথ্য জানিয়েছে। আপনি মাত্র ৬ টি সহজ ধাপে বাড়িতে বসেই আপনার কার্ডকে টোকেনাইজ করতে পারেন। জেনে নিন সেই পদ্ধতি:
১. প্রথমে যেকোনো ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা অ্যাপ খুলুন। তারপর কেনার জন্য কোনো জিনিস নির্বাচন করে পেমেন্ট অপশনে ক্লিক করুন।
২. চেক আউটের সময়, ইতিমধ্যেই সংরক্ষিত থাকা ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের বিবরণ পূরণ করুন।
৩. এখন আপনি “RBI Guidelines on Secure Your Card Age” বা “RBI Guidelines on Tokenize Your Card Age” বিকল্পটি পাবেন। এই বিকল্পটি নির্বাচন করুন।

tokenization,rbi,Debit Card,India,National,Online Payment,Indian Rupees,Money,New Rules,Benifits,Reserve Bank of India,October,Credit Card
৪. এখন আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর এবং ইমেলে একটি OTP আসবে। সেই OTP দিয়ে লেনদেন সম্পূর্ণ করুন।
৫. এখানে আপনি Generate Token-এর অপশন পাবেন। সেটি নির্বাচন করুন। এটি করার মাধ্যমে টোকেন তৈরি হবে এবং আপনার কার্ডের তথ্যের পরিবর্তে, টোকেনটি উল্লিখিত ওয়েবসাইট/অ্যাপে সংরক্ষণ করা হবে।
৬. এরপরে আপনি যখন আবার একই ওয়েবসাইট বা অ্যাপে যাবেন, তখন আপনি সংরক্ষিত টোকেন সহ কার্ডের শেষ চারটি সংখ্যা দেখতে পাবেন।

সম্পর্কিত খবর