টাইমলাইনবিনোদন

দীপিকা, প্রিয়াঙ্কা নয় ২০২০ তে সবচেয়ে বেশি সার্চ হয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: প্রতি বছরই গুগলের (google) তরফে সর্বাধিক ‘সার্চড’ বিষয়ের তালিকা প্রকাশ করা হয়। তার অন‍্যথা হল না এই মহামারির বছরে। সম্প্রতি গুগল ইন্ডিয়ার (google india) তরফে প্রকাশিত হল ২০২০ সালে সবথেকে বেশি খোঁজা ব‍্যক্তিদের নাম। সেই তালিকায় নয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে নাম উঠে এসেছে কঙ্গনা রানাওয়াত ও অমিতাভ বচ্চনের।

তবে সবথেকে আশ্চর্যজনক বিষয় হল দীপিকা পাডুকোন, আলিয়া ভাটদের হেলায় হারিয়ে এবার গুগলের তালিকায় নিজের জায়গা করে নিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুত কাণ্ডের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty)। গুগল ইন্ডিয়ার তালিকায় সবথেকে বেশি খোঁজা ব‍্যক্তিদের মধ‍্যে সপ্তম স্থানে রয়েছেন রিয়া।


তালিকার প্রথম স্থানে রয়েছে নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নাম। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামী। তৃতীয় স্থানে বলিউড গায়িকা কনিকা কাপুর। করোনা আক্রান্ত অবস্থায় বেশ কিছু হেভিওয়েট পার্টিতে উপস্থিত হয়ে সোশ‍্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছিলেন তিনি।

চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন ও অমিতাভ বচ্চন। করোনা কালের মধ‍্যে আচমকা খবর রটে যায় প্রয়াত হয়েছেন উত্তর কোরিয়ার এই দোর্দন্ডপ্রতাপ শাসক। পরে অবশ‍্য জানা যায় সে খবর ভুয়ো। রিয়ার পরেই রয়েছেন অঙ্কিতা লোখান্ডে (ankita lokhande) ও কঙ্গনা রানাওয়াতের নামও।


তালিকার নবম স্থানে রয়েছেন অঙ্কিতা ও দশম স্থানে রয়েছেন কঙ্গনা। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত‍্যুর জন‍্য রিয়া চক্রবর্তীকে দায়ী করে একসময় অনেক মন্তব‍্যই করেছিলেন প্রয়াত অভিনেতার প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখান্ডে। রিয়া ও সুশান্তের সম্পর্ক নিয়ে বেশ তীর্যক মন্তব‍্য করেছিলেন তিনি। এমনকি সুশান্তের পরিবারের সঙ্গেও যে রিয়ার সম্পর্ক ভাল নয় তা নিয়েও কটাক্ষ করেছিলেন অঙ্কিতা।

অপরদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত‍্যুর পর থেকেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় অতি সক্রিয় হয়ে ওঠেন কঙ্গনা রানাওয়াত। প্রথমে অভিনেতার মৃত‍্যুর জন‍্য বলিউডে বেশ কয়েকজন হেভিওয়েটদের বিরূদ্ধে স্বজনপোষনের অভিযোগ আনেন তিনি। তারপর বলিউডের মাদক মামলা নিয়েও সরব হতে দেখা যায় তাঁকে। মহারাষ্ট্রের শিবসেনার সঙ্গে কঙ্গনার বিরোধ রীতিমতো সংবাদ শিরোনামে উঠে আসত প্রায়দিনই।

Back to top button