প্রতি কেজি ২৫ টাকা! আটা, ডালের পর এবার চালের দাম কমাতে নয়া উদ্যোগ মোদী সরকারের, খুশি আম জনতা

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ‘ভারত আটা’, ‘ভারত ডাল’র পর এবার বাজারে চলে এল ‘ভারত চাল’ (India Rice)। মুদ্রাস্ফীতির ছায়া যাতে মানুষের উপর না পড়ে তার সবধরনের প্রস্তুতি নিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বাজারে যতই মূল্যস্ফীতি বিরাজ করুক না কেন, অন্তত খাদ্যদ্রব্যের দাম সাধারণ মানুষের সাধ্যের মধ্যে রাখার জন্য সবকিছুই ডিসকাউন্ট রেটে বিক্রি করা হচ্ছে।

   

ইতিমধ্যেই পেঁয়াজ এবং টমেটোর দামে রাশ টানার জন্য একাধিক নয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার (Central Government)। এখন অনেকটাই কম দামে পেঁয়াজ, টমেটো কিনতে পারছেন সাধারণ মানুষ। আর এবার খুচরো বাজারে চালের বিক্রয় মূল্য (Rice Price) কমানোর জন্য নয়া পদক্ষেপ নিচ্ছে কেন্দ্র। যার জেরে আগামী দিনে চাল ব্যাপক সস্তা হবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

সম্প্রতি এক ঊর্ধ্বতন আধিকারিক জানিয়েছেন, খুব শীঘ্রই ২৫ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি হবে ভারতে। এবং তা কার্যকর হবে সরকারি সংস্থার মাধ্যমে। এবং এই কাজের দায়ভার দেওয়া হয়েছে ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল কো-অপারেটিভ মার্কেটিং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (নাফেড), ন্যাশনাল কো-অপারেটিভ কনজ্যুমার ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া লিমিটেড (এনসিসিএফ)-র হাতে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভোক্তা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, চালের ক্রমবর্ধমান দাম নিয়ন্ত্রণে আনতেই ‘ভারত চাল’ বিক্রি করা হবে। মন্ত্রণালয় বলছে, গত বছরের তুলনায় এ বছর চালের দাম ১৪.১ শতাংশ বেড়েছে এবং চালের দাম পৌঁছে গেছে প্রতি কেজি ৪৩.৩ টাকায়। সংশ্লিষ্ট আধিকারিক আরও বলেন, ‘সবসময় আমাদের চেষ্টা থাকে আগে মূল্য নিয়ন্ত্রণ এবং পরে মূল্যস্ফীতি।’

সরকার আর কি বিক্রি করছে?

বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকার সস্তায় আটা ও ছোলার ডাল বিক্রি করছে। আর এই সস্তার খাদ্য দ্রব্য মিলবে সরকারি সংস্থার আউটলেটগুলিতে। এখানে ভারত আটা মিলবে কেজি প্রতি ২৭.৫০ টাকায়। যেখানে ভারত ডাল মিলবে কেজি প্রতি ৬০ টাকা দরে। যার জন্য গোটা দেশজুড়ে প্রায় দু’হাজার রিটেইল পয়েন্ট তৈরি করা হয়েছে। ভারত চালও বিক্রি হবে একইভাবে। দানা শস্যের পাশাপাশি পেঁয়াজ ও টমেটোও সস্তায় বিক্রি হচ্ছে সরকারি আউটলেটে। মাদার ডেয়ারি, সাফল সহ বিভিন্ন মাধ্যমে ২৫ টাকা কেজি পেঁয়াজ মিলছে।