টাইমলাইনবিনোদন

রতিক্রিয়া প্রেমী দিদিমণিও ইংরেজিতে গালি দেন, সোশ‍্যাল মিডিয়া পোস্টে ফের শ্রীলেখাকে কটাক্ষ রিমঝিমের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ফের শ্রীলেখা মিত্র (sreelekha mitra)-রিমঝিম মিত্র (rimjhim mitra) দ্বৈরথ। সুযোগ পেলেই একে অপরের প্রতি কটাক্ষ করতে কেউই পিছপা হচ্ছেন না। এর আগেও পরোক্ষ ভাবে শ্রীলেখাকে কটুক্তি করেছিলেন রিমঝিম, এমনটাই অভিযোগ ছিল অভিনেত্রীর। এবার ফের সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করলেন তিনি। রিমঝিমের দাবি, অন‍্যদের কটাক্ষ করলেও শ্রীলেখা নিজেও কিন্তু ‘কুকথা’ বলেন। এবার তারই প্রমাণ দিলেন রিমঝিম।

মঙ্গলবার রাতে নিজের ফেসবুক হ‍্যান্ডেলে একটি লম্বা পোস্ট করেন বিজেপী নেত্রী। তিনি লেখেন, ‘মিড লাইফ ক্রাইসিস সত্যি মানুষকে এতটা ফ্রাস্ট্রেটেড করে দেয় জানা ছিল না। অজ্ঞতাই সুখ একথাই আমি চিরকাল মেনে এসেছি, তাই যে যা খুশি বলুক গায়ে মাখি না, কারণ আমার কিছু এসে যায় না এই সব লোকেদের কথায়। একটু ফুটেজের জন্য ভিত্তিহীন কথা বলা পাবলিক দের কষ্টটা বুঝি। এই পোস্টের উদ্যেশ্য হল অনুভূতিতে বিশাআআআল আঘাত পাওয়া মরাল মাসি/মেসোদের একি পদস্খলন! নাকি ওনাদের অঙ্গুলির ছোঁয়ায় কুকথা ও আজ পবিত্র?’


রিমঝিম আরো যোগ করেছেন, ‘আমার অবশ্য এখন অন্য ভয় লাগছে, রতিক্রিয়া প্রেমী দিদিমণি (বৌদি বলিনি কিন্তু) যে ভাবে শয়নে স্বপনে এখনও আমায় দেখে চলেছেন আমি সুরক্ষিত তো বন্ধুরা? যদিও আমি  খুবই ভেঙে পড়েছি এমনিতে, এলিট দিদির এই ভাষা দেখে, দিদি শেখালেন ইংরিজি তে বললেই শব্দ শুদ্ধ হয়ে যায়। দয়া করে সস পৌঁছে দিন কেউ , কারণ আপনারা জানেন কে আমায় ব্লকিয়েছে। একটাই দুঃখ, জ্ঞানের ঝাঁপি খুলে ধেয়ে আসা পাবলিক এখন সব চুপ (কাউকে কাউকে ইনবক্সে জিগ্যেস করেছিলাম এটা নিয়ে কিছু বলার আছে কিনা, নেটওয়ার্ক হঠাৎ করে ডাউন হয়ে গেছে মনে হয় তাদের ফোনের)।

এই পোস্টের সঙ্গে শ্রীলেখার একটি ফেসবুক পোস্টও জুড়ে দিয়েছেন রিমঝিম যেখানে মহিলা ট্রোলারদের কটাক্ষ করতে গিয়ে একটি অপশব্দ প্রয়োগ করেছেন শ্রীলেখা। সেই শব্দটির প্রতি নেটিজেনদের নজর টেনেই অভিনেত্রীকে কটাক্ষ করেছেন রিমঝিম। তবে এখনো পর্যন্ত এই অভিযোগের কোনো উত্তর মেলেনি শ্রীলেখার পক্ষ থেকে।

প্রসঙ্গত, এর আগে শ্রীলেখা অভিযোগ করেছিলেন অভিনেত্রী তথা বিজেপি কর্মী রিমঝিম মিত্র সোশ‍্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর কটাক্ষ ছুঁড়েছেন তাঁকে। শ্রীলেখা অভিযোগ করেছিলেন বিজেপি নেত্রী রিমঝিম মিত্র একটি কমেন্টে তাঁকেই কটাক্ষ করে ‘থলথলে বৌদি’ বলেছেন। রিমঝিমের কমেন্টে লেখা ছিল ‘থলথলে বৌদি আমায় ব্লকিয়েছে। কমরেট মাংস পিণ্ড কি এটা ঠিক করল আমার সঙ্গে?’

রিমঝিম কমেন্টে কারোর নাম না করলেও শ্রীলেখা স্পষ্ট বলেছিলেন এটা তাঁকেই উদ্দেশ‍্য করে বলা হয়েছে। এরপর পালটা নাম না করে নিজের সোশ‍্যাল মিডিয়া হ‍্যান্ডেলে রিমঝিম লেখেন, ‘যার যার বাজার মন্দা যাচ্ছে ফুটেজের জন্য নিজে খেটে খান, আমার নামে ফালতু বিল কাটবেন না।’

Related Articles

Back to top button