‘নেশাটাই ছাড়তে…’, ভোটের মাঝেই ‘বেফাঁস’ সন্দেশখালির BJP প্রার্থী রেখা পাত্র, একি বললেন!

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ভোটের মাঝেই ফের একবার বিজেপির উপর হামলার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল বসিরহাট। বসিরহাটের বিজেপি প্রার্থী রেখা পাত্রের (BJP candidate Rekha Patra) সভায় ভয়ঙ্কর হামলার অভিযোগ। অভিযোগ, সভা চলাকালীন বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা চালায় স্থানীয় তৃণমূল নেতা ও তার দলবল। পুলিশের সামনেই তৃণমূল নেতাদের দাদাগিরি চলে বলেও অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের।

শুরু হয়ে গিয়েছে লোকসভা নির্বাচন (Loksabha Vote)। রাজ্যের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ শেষ। আগামী ২৬ এপ্রিল দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ হতে চলছে। আর এরই মাঝে ফের হিংসার ঘটনা। সন্দেশখালির রেখা পাত্রের সভায় উপস্থিত বিজেপি সমর্থকদের মারধরের পাশাপাশি ভাঙচুরের অভিযোগও উঠেছে শাসকদলের বিরুদ্ধে।

বসিরহাট কেন্দ্রে সন্দেশখালি আন্দোলনের প্রতিবাদী মুখ রেখা পাত্রকে টিকিট দিয়েছে বিজেপি। বর্তমানে অসুস্থতা কাটিয়ে কোমর বেঁধে প্রচার চালাচ্ছেন রেখা। শনিবার হিঙ্গলগঞ্জের কালীতলা এলাকায় বিজেপির পথসভায় রেখা পাত্র বক্তব্য শেষ করে নামার সঙ্গে সঙ্গেই সেখানে হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ, কালীতলা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা শ্যামল মন্ডল-সহ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা ওই সভায় গিয়ে হামলা চালায়।

গন্ডগোলের খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। তবে বিজেপির অভিযোগ, পুলিশের সামনেই বিজেপির সভা মঞ্চে থাকা চেয়ার ছুড়ে ছুড়ে ফেলা হয়। তৃণমূল নেতার নির্দেশে বিজেপি কর্মী, সমর্থকদের মারধরের পাশাপাশি তাদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। দিন কয়েক আগেও এই তৃণমূল নেতা শ্যামল মন্ডলের বিজেপির প্রচারের ট্যাবলো, গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছিল। পুলিশেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

rekha patra 3

আরও পড়ুন: ‘আমাদের রাস্তায় বসিয়ে এসেছেন…’, প্রাক্তন বিচারপতির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন চাকরিপ্রার্থী মাহি

তৃণমূল নেতার দাদাগিরির প্রসঙ্গে রেখা পাত্র বলেন, ‘হয়ত তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী ভয় পেয়ে গিয়েছে। তাদের এটাই কাজ। এতদিন তাই করে এসেছে। এতদিন মানুষের উপর যে অত্যাচার করে এসেছে সেই নেশাটাই তৃণমূল ছাড়তে পারছে না। আজ বসিরহাটের মানুষ এককাট্টা হয়েছেন দেখে, ভয় পাচ্ছে। ওরা চাইছে বিজেপি যেখানে যেখানে সভা করবে, সেখানে সেখানে গিয়ে ভয় দেখাবে।’

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর