‘নয়া সংসদ ভবনে চাই নমাজ পড়ার জায়গা’, অখিলেশের সাংসদের মন্তব্যে তুঙ্গে বিতর্ক

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: নতুন সংসদ ভবনে নমাজ (Namaj) পড়ার জায়গা রাখতে হবে, এমনই দাবি করে ফের বিতর্কে সমাজবাদী পার্টির (Samajwadi Party) সাংসদ শফিকুর রহমান বার্ক (Shafiqur Rahman Barq)। মঙ্গলবার সংসদ ভবনের বাইরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘দেখুন এখানে নমাজ পড়ার জন্য কোনও জায়গা নেই। নতুন সংসদে মুসলমানদের (Muslim) নমাজ পড়ার জায়গা থাকা উচিত। যখন মুসলমানদের নমাজ পড়ার সময় হয়, তখন তাদের জন্য কিছুটা জায়গা থাকা উচিত। কিন্তু সেই জায়গা রাখা হয়েছে কিনা তা এখনও যাচাই করিনি। তবে এরা সেই জায়গা কী দেবে, এরা বিদ্বেষ ছড়াতে ব্যস্ত।’

লোকসভার সদস্য হওয়ার পর থেকেই বারবার বিতর্কে নাম জড়িয়েছেন শফিকুর রহমান বার্ক। একবার তিনি বলেছিলেন, বন্দে মাতরাম ইসলামের (Islam) বিরোধী এবং মুসলিমরা তা অনুসরণ করে না। সম্প্রতি, অযোধ্যায় খনন কার্য চলাকালীনও বিতর্কিত মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ‘ওখানে একটা মসজিদ ছিল এবং এটি সর্বদা মসজিদই থাকবে।’

আফগানিস্তানে (Afghanistan) যখন তালিবান (Taliban) দখল করেছিল, সেই সময় ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের তুলনা করেছিলেন তিনি। শফিকুর সেই সময় ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং তালিবানদের এই আফগানিস্তান দখলকে একই সারিতে দাঁড় করিয়ে তালিবদের সমর্থন জানিয়েছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, সোমবারই বার্কের কথা উল্লেখ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার পরে এ পর্যন্ত সাড়ে সাত হাজারেরও বেশি সাংসদ এই হাউসে অবদান রেখেছেন। তাঁদের মধ্যে একজন সাংসদ রয়েছেন যাঁর বয়স ৯৩ বছর এবং এখনও তিনি লোকসভার সদস্য।’ কিন্তু এরই মধ্যে সমাজবাদী পার্টির সাংসদ এবার নমাজ পাঠ নিয়ে ফের বিতর্ক উস্কে দিলেন।

shafiqur rahaman

উল্লেখ্য, নয়া সংসদ ভবনে লোকসভা কক্ষে আসন রয়েছে ৮৮৮। রাজ্যসভার আসন রয়েছে ৩৮৪। রাজ্যসভা কক্ষের নকশা তৈরি হয়েছে জাতীয় ফুল পদ্মের আদলে। জাতীয় পাখি ময়ূরের আদলে তৈরি করা হয়েছে লোকসভা কক্ষ।

Avatar
Monojit

সম্পর্কিত খবর