টাইমলাইনভারত

কথায় কথায় ফতোয়া দেওয়া মৌলবীদের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াসীম রিজভী।

সম্প্রতি কট্টরপন্থীরা, নুসরত জাহানের সিঁদুর, টিপ ইত্যাদি পরা নিয়ে ফতোয়া জারি করে দিয়েছে। শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান  সৈয়দ ওয়াসীম রিজভী তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) সাংসদ নুসরত জাহানের সিঁদুর ও টিপ পরার মামালায় উলেমার  ফতোয়ার উপর আপত্তি জানিয়েছে। সৈয়দ ওয়াসীম রিজভী বলেছেন সব মুসলিম বিবাহিত মহিলাকে নিজের ইচ্ছা মতো সাজ গোজ করার অধিকার আছে। উনি কড়া শব্দে বলেছেন যে মোল্লা মৌলবীদের এটা প্রমান করা উচিত  যে সিঁদুর ও টিপ পড়া ইসলামে হারাম।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, রিজভী একটি বিবৃতি জারি করে বলেছেন যে কোনো মুসলিম মহিলা সিঁদুর লাগাক, চুরি পড়ুক, মঙ্গলসূত্র পড়ুক বা টিপ পড়ুক তা শরিয়াত অনুযায়ী নিষিদ্ধ নয়। এছাড়া উনি বললেন যে তিনি পৃথিবীর সব মোল্লাদের চ্যালেঞ্জ করছে যে তারা প্রমান করে দেখাক যে কোন শরিয়াতে লেখা আছে যে সিঁদুর লাগানো নিষিদ্ধ।
TMC সংসদ নুসরাত জাহান এর বিরুদ্ধে জারি করা ফতোয়ার নিন্দা করে রিজভী বললেন যে হিন্দুস্তানে এটি তালিবান মানসিকতার প্রচার। এই ধরণের ফতোয়া জারি করা লোকেদের সাথে কড়া ভাবে মোকাবিলা করার প্রয়োজন আছে।

প্রসঙ্গত,  কিছুদিন আগে শিয়া সেন্ট্রাল বোর্ডের অধ্যক্ষ সৈয়দ ওয়াসীম রিজভী বলেছিলেন যদি সময় থাকতে প্রাথমিক মাদরাসে বন্ধ করা না হয় তবে ১৫ বছর পর দেশের অর্ধেকের বেশি মুসলমান ISIS এর বিচারধারার সমর্থক হয়ে যাবে। আর এখন উনি কট্টরপন্থীদের দ্বারা জারি করা ফতোয়ার বিরোধ করেছেন। আসলে সিঁধুর, টিপ ইত্যাদি পরিধান করা ধর্মের অংশ নয়, এটা ভারতীয় সংস্কৃতির অংশ। ভারতে থাকা সমস্থ নারী এই সংস্কৃতির পালন করতে পারে। কারণ এই ধরনের সংস্কৃতির পেছনে কোনো না কোনো বিশেষ বৈজ্ঞানিকসম্মত কারণ থাকে। কিন্তু বর্তমানে কট্টরপন্থীরা ইসলামের দোহাই দিয়ে ভারতীয় সংস্কৃতির উপরেও ফতোয়া জারি করে দিচ্ছে।

Back to top button
Close