হয়ে যান সতর্ক! SBI, ICICI Bank, Axis Bank এবং PNB সাবধান করল গ্রাহকদের, নাহলেই হবে…..

   

বাংলা হান্ট ডেস্ক: করোনার (Corona) মতো ভয়াবহ মহামারীর পর দেশজুড়ে (India) ডিজিটাল ব্যাঙ্কিংয়ের গতি অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন অনেকেই সরাসরি ব্যাঙ্কের শাখায় না গিয়ে ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং ব্যবহার করছেন। তবে একই অনুপাতে ব্যাঙ্কিং জালিয়াতির সংখ্যাও বেড়েছে। সাইবার প্রতারকরা নতুন নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করে ব্যাঙ্কিং জালিয়াতি ঘটাচ্ছে।

এমতাবস্থায়, ব্যাঙ্কিং জালিয়াতির ক্রমবর্ধমান ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI) সহ একাধিক ব্যাঙ্ক তাদের গ্রাহকদের জন্য সতর্কতা জারি করেছে। আসুন, জেনে নিই ব্যাঙ্কগুলি ঠিক কি কি সতর্কবার্তা জারি করেছে এবং কিভাবে এই বিপদ এড়ানো যাবে?

SBI, ICICI Bank, Axis Bank and PNB warned customers.

SBI, ICICI ব্যাঙ্ক এবং AU Small Finance APK জালিয়াতির বিষয়ে সতর্ক করেছে: ইতিমধ্যেই SBI সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যম “X”-এ একটি পোস্ট করেছে। যেখানে বলা হয়েছে, “এটি লক্ষ্য করা গেছে যে প্রতারকরা SBI রিওয়ার্ড পয়েন্ট রিডিম করতে SMS বা WhatsApp-এ APK ফাইল পাঠাচ্ছে। অনুগ্রহ করে মনে রাখবেন SBI কখনোই SMS বা WhatsApp-এর মাধ্যমে কোনো লিঙ্ক বা অবাঞ্ছিত APK ফাইল পাঠায় না। এই ধরণের কোনো লিঙ্কে ক্লিক করবেন না বা অজানা ফাইল ডাউনলোড করবেন না।”

আরও পড়ুন: মাত্র ৩০১ টাকায় ১০ টি ফোনে চলবে হাই স্পিড ইন্টারনেট! বাজারে ঝড় তুলছে Airtel-এর Wi-Fi ডিভাইস

APK কি: জানিয়ে রাখি যে, APK ফাইলগুলি অ্যান্ড্রয়েড ইকোসিস্টেমকে প্লে স্টোরে তৃতীয় পক্ষের মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এবং নিয়ন্ত্রণ করার অনুমতি দেয় ও হ্যাকারদের APK ইনস্টল করে বা বৈধ অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে হ্যাক করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন: কেন সবসময় কালো পাগড়ি পরতেন রাইসি? বেশ রোমাঞ্চক কাহিনীটি

ICICI ব্যাঙ্কও সতর্ক করেছে: এদিকে, ICICI ব্যাঙ্কও তার গ্রাহকদের অনলাইন জালিয়াতি এড়াতে সতর্ক করেছে। ব্যাঙ্কের তরফে গ্রাহকদের ইমেল, WhatsApp এবং অন্যান্য মাধ্যমে পাঠানো ভুয়ো লিঙ্ক এবং ফাইলগুলিতে নজর রাখতে সচেতন করেছে। এই প্রসঙ্গে ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, “সতর্ক থাকুন এবং নিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার মোবাইলে অজানা উৎস থেকে কোনও সন্দেহজনক অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করছেন না,” পাশাপাশি, ওই ব্যাঙ্কও জানিয়েছে যে, ICICI ব্যাঙ্ক কখনোই তাদের গ্রাহকদের একটি নির্দিষ্ট মোবাইল নম্বরে কল করতে বা কোনো অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার জন্য কোনো SMS/Whatsapp মেসেজ পাঠায় না।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর