টাইমলাইনবিনোদন

বিগ বসে ভালবাসার নাটক! রাকেশ বাপতকে ভুলে চলতি বছরেই বিয়ের পিঁড়িতে শমিতা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বিগ বসে গিয়েই নতুন প্রেম খুঁজে পেয়েছিলেন শমিতা শেট্টি (shamita shetty)। রাকেশ বাপতের (raqesh bapat) সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক একটা লম্বা সময় ধরে গসিপের হট টপিক ছিল। শমিতা নিজে এক সময় স্বীকার করেছিলেন যে তিনি বহুদিন পর মনের মতো একজন মানুষকে খুঁজে পেয়েছেন। কিন্তু সে সবই এখন অতীত। রাকেশকে ভুলেছেন শমিতা। এবার তিনি ঘোষনা করলেন, ২০২২ এই বিয়ে করবেন!

রবিবার বিগ বসের পর্বে এক জ‍্যোতিষীকে দেখা গিয়েছিল শমিতার ভাগ‍্য নির্ধারন করতে। দিদি শিল্পার মতো ভাগ‍্য নাকি তাঁর হবে না। কোনো ধনী, নামজাদা ব‍্যক্তি নন, শমিতার হবু স্বামী হবেন একজন সাধারন মানুষ। তবে বিয়ের পরেই ধনসম্পদ ফুলেফেঁপে উঠবে তাঁর। শুধু তাই নয়, জ‍্যোতিষীর দাবি, এক ছেলে ও এক মেয়ে হবে শমিতার।


পরে সহ প্রতিযোগী প্রতীক সেহজপাল শমিতাকে শুভেচ্ছা জানালে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে চলতি বছরেই বিয়ে করবেন তিনি। এ ব‍্যাপারে তাঁর মনে কোনো দ্বিধা নেই। শুধু পাত্র কে হবে সেটাই তিনি জানেন না। উত্তরে প্রতীক শমিতাকে পরামর্শ দেন, তাড়াহুড়ো না করতে। বিশেষ করে রাকেশের বিষয়ে যেন কোনো হঠকারী সিদ্ধান্ত তিনি না নেন।

সঙ্গে সঙ্গে শমিতা তেড়েফুঁড়ে ওঠেন। পালটা তিনি বলেন, “আমি ওকে চিনিই না। শোতে এসেই ওর সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে।” রাকেশের উপরে যে তিনি বেশ ক্ষেপেছেন তা বুঝতে বাকি নেই দর্শকদের। আসলে শারীরিক অসুস্থতার জন‍্য শো ছেড়ে দিয়েছেন রাকেশ। যদিও এখন তিনি অনেকটাই সুস্থ, তাও রাকেশ জানিয়েছেন তিনি আর ফিরবেন না। বাড়িতেই বিশ্রামে থাকতে চান।


সলমনের ঘোষনা শুনে হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন শমিতা। সলমন তাঁকে মনের জোর রাখতে বলেন। তিনি বলেন, শমিতা একাই খেলতে পারবেন। অন‍্য কিছু না ভেবে এখন খেলাটার দিকে মনোযোগ দেওয়া উচিত তাঁর। কিন্তু সলমন বেরিয়ে যেতেই কান্নায় ভেঙে পড়েন শমিতা। একই সঙ্গে তীব্র ক্ষোভ নিয়ে বন্ধু নেহা ভাসিনকে তিনি বলেন, রাকেশের এখানে আসারই প্রয়োজন ছিল না।

শমিতার অভিযোগ, খেলা একটু কঠিন হলেই রাকেশ পালিয়ে যান। তিনি আগেই বুঝেছিলেন যে রাকেশ চলে যাবেন। কিন্তু তাঁকে একবারও বললেন না রাকেশ, এতেই ক্ষুব্ধ শমিতা। শেষমেষ কি সত‍্যিই রাকেশকে ভুলে অন‍্য কারোর গলায় মালা দেবেন শমিতা? প্রশ্ন নেটিজেনদের।

Related Articles

Back to top button