ওয়েলালাগে ও আশালঙ্কার বিষাক্ত স্পিনে নাস্তানাবুদ ভারত! চালকের আসনে শ্রীলঙ্কা

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ যে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপ-কে অপ্রতিরোধ্য মনে হয়েছিল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে, আজ তারাই শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে (Sri Lanka vs India) মাঠে নেমে স্পিনের ফাঁদে হলেন ধরাশায়ী। অথচ ভারতের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্তভাবে। রোহিত শর্মা নিজের ১০,০০০ ওডিআই রান সম্পূর্ণ করেছিলেন দ্বিতীয় দ্রুততম ক্রিকেটার হিসেবে। শুভমান গিল কিছুটা রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করলেও সেট হয়ে গিয়েছিলেন।

কিন্তু খেলা সম্পূর্ণরূপে বদলে দিলেন শ্রীলঙ্কার বাঁ-হাতি অফস্পিনার দুনীথ ওয়েলালাগে। প্রথমে শুভমান গিল, তারপর ছন্দে থাকা বিরাট কোহলি এবং শেষে পঞ্চাশের গণ্ডি পেরিয়ে যাওয়ার রোহিত শর্মাকে ড্রেসিংরুমে ফেরান তিনি। শুভমান গিলের ক্ষেত্রে বলটি অতিরিক্ত টার্ন করে তাকে চমকে দেয়। বিরাট কোহলির ক্ষেত্রে বলটা কিছুটা থমকে আশায় কোহলির মিস টাইম করেন এবং শর্ট মিড উইকেটে ক্যাচ দেন।

রোহিত শর্মার ক্ষেত্রে বলটি নিচু হয়ে আসায় ডেলিভারিটি সামলাতে পারেন না ভারতীয় অধিনায়ক। তার আগে অবশ্য ফাস্ট বোলারদের বিরুদ্ধে আগ্রাসী ব্যাটিং করে ৪৮ বলে ৫৩ রান করেছিলেন হিটম্যান। এরপর কোহলির মতোই মিস টাইম করে সোজা ওয়েলালাগের হাতেই ক্যাচ তুলে দেন লোকেশ রাহুল। ভারতীয়দের মধ্যে ব্যাট হাতে আজ তাকেই সবচেয়ে বেশি ছন্দে দেখিয়েছিল স্পিনারদের বিরুদ্ধে। ৪৪ বলে ৩৯ রানের একটি ভদ্রস্থ ইনিংস খেলেন তিনি। হার্দিক পান্ডিয়াও এদিন সম্পূর্ণ ব্যর্থ। প্রথমে ওয়েলালাগের কট বিহাইন্ডের আবেদনের সাড়া না দিলেও এরপর শ্রীলঙ্কার নেওয়া রিভিউতে ড্রেসিংরুমে ফিরতে বাধ্য হন হার্দিক।

ভারতীয় দলে এই মুহূর্তে যে দুজন প্রধান বাঁ-হাতি ব্যাটার রয়েছে, তাদের দায়িত্ব নিয়ে নেন অফস্পিনার আশালঙ্কা। তার অফস্পিন বোলিংয়ের শিকার হয়ে ফেরেন ঈশান কিষাণ ও জাদেজা। দীর্ঘক্ষণ ক্রিজে সময় কাটিয়ে ৬১ বল খেলে তারপর আচমকাই এক্সট্রা কভারে ওয়ালেলেগার হাতে আশা লঙ্কার শিকার হন ঈশান। জাদেজা ১৯ বল খেলে মাত্র ৪ রান করে আউট হন উইকেটের পেছনে খোঁচা দিয়ে। এরপর যশপ্রীত বুমরা ও কুলদীপ যাদবকে পর পর দুই বলে ড্রেসিংরুমে ফেরান তিনি। ৪৭ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ভারত ১৯৭ রান তোলার পর বৃষ্টি ম্যাচে থাবা বসায়।

কিন্তু ভারতীয় দল একটা ব্যাপারে স্বস্তি পেতে পারে। কলম্বোতে পিচের পরিবর্তন দেখে রোহিত শর্মা আজ মাঠে নেমেছেন তিন স্পিনার নিয়ে। ফলে শ্রীলঙ্কার কাজটাও অতটা সহজ হবে না। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বের ম্যাচের পর ভারতের মিডল অর্ডারের কাছে সুযোগ ছিল আজ নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দেওয়ার। কিন্তু লোকেশ রাহুল ও ঈশান কিষাণের ৬৩ রানের পার্টনারশিপ বাদে প্রাপ্তির খাতা বলতে গেলে শূন্য অন্তত এই ম্যাচে।

 

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর