কুন্তলের চিঠি মামলায় অভিষেককে নিয়ে বড় রায় সুপ্রিম কোর্টের, কী নির্দেশ দিল আদালত?

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কুন্তল ঘোষের চিঠি মামলায় সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে একদিক থেকে স্বস্তি পেলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। কুন্তল ঘোষের চিঠি মামলায় হাইকোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন নেতা। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতেই ২৫ লাখ টাকা জরিমানার নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ দিল শীর্ষ আদালত। আপাতত অভিষেককে আর ২৫ লক্ষ দিতে হচ্ছে না।

তবে অন্যদিকে, নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় কুন্তল ঘোষের লেখা এক চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে অভিষেককে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে সিবিআই। আজকের শুনানিতে কলকাতা হাই কোর্টের রায়ই বহাল রাখল শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)।

এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন আগামী ১০ জুলাই ধার্য হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে সিবিআই (CBI) কিংবা ইডি চাইলে কুন্তল ঘোষের চিঠি মামলায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। প্রসঙ্গত, কুন্তল ঘোষের চিঠি মামলায় অভিষেককে যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তারপর ঘটনাক্রমে সেই মামলা এজলাস পরিবর্তন হয়ে যায় হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহার বেঞ্চে।

abhishek

তবে হাকিম বদল হলেও বদল হয়নি হুকুম। বিচারপতি সিনহাও বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের রায়ই বহাল রাখেন। শুধু তাই নয়, সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদে একাধিকবার স্থগিতাদেশ চেয়ে আদালতের সময় নষ্ট করার জন্য অভিষেক এবং অভিযুক্ত কুন্তল ঘোষ (Kuntal Ghosh) দুজনকেই ২৫ লক্ষ টাকা করে মোট ৫০ লক্ষ টাকা আর্থিক জরিমানার নির্দেশ দেন।

তবে অভিষেকও এরপর বিচারপতির এই নির্দেশের বিরোধিতা করে কলকাতা হাই কোর্টেরই ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হন। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে জরিমানার নির্দেশের ওপর স্থগিতদেশ দিলেও জিজ্ঞাসাবাদের রায় বহাল রেখেছে। কলকাতা হাই কোর্টের রায়ে কোনও রকম হস্তক্ষেপ করল না দেশের শীর্ষ আদালত।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর