টাইমলাইনভারত

মুমূর্ষু রোগীর প্রাণ বাঁচাতে সীমান্ত খুলে দিলো ভারত, মাথা হেট নেপালি প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চালবাজ চীনের (China) কথা মতো ভারতের (India) বিরুদ্ধে লাফাচ্ছে নেপাল (nepal)। কিন্তু যখন মুশকিল সময় আশে, তখন ভারতের কথাই মনে পড়ে তাঁদের। আর ভারতও বড় মন দেখিয়ে সবসময় সাহাজ্যের জন্য প্রস্তুত থাকে। সম্প্রতি মামলা উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড় জেলার ভারত-নেপাল বর্ডার থেকে সামনে আসছে। সেখানে ভারত নেপালের আবেদন মাত্রই আন্তর্জাতিক ব্রিজ খুলে দেয়। এক মুমূর্ষু রোগীর জীবন বাঁচাতেই ভারত এই মানবিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উল্লেখ্য, নেপালের এক তরুণী অসুস্থ হয়ে পড়ে, আর লাগাতার তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছিল। এরপর ওই তরুণীর পরিবার স্থানীয় প্রশাসনের কাছে সাহাজ্যের আর্তি জানায়। এরপর নেপালি আধিকারিকরা ভারতকে আবেদন জানায় আর ভারতও তৎক্ষণাৎ ওই আন্তর্জাতিক ব্রিজ খুলে দেয়। এরপর রোগীর পরিবার ওই তরুণীকে চিকিতসার জন্য ভারতে নিয়ে আসে। ভারতের এই মানবিক পদক্ষেপের ফলে ভারতের আধিকারিকদের ধন্যবাদ জানিয়েছে ওই তরুণীর পরিবার।

শোনা যায় যে, নেপালের মল্লিকার্জুন গ্রামের এক তরুণী দীর্ঘদিন ধরে দার্চুলার একটি হাসপাতালে চিকিৎসারত। লাগাতার ওই তরুণীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছিল। তাঁর বেঁচে থাকা প্রায় অসম্ভব হয়ে গিয়েছিল। আরেকদিকে, ভারতের আন্তর্জাতিক ব্রিজ বন্ধ থাকার কারণে তরুণীর পরিবার তাকে ভারতে নিয়ে আসতে পারছিল না। নেপালের সমাজসেবী কর্মীদের মাধ্যমে তরুণীর পরিবার উত্তরাখণ্ডের পিথোরাগড় জেলার প্রশাসনের কাছে সাহাজ্যের আবেদন জানায়।

এরপর ভারতীয় আধিকারিকরা তরুণীর জীবন বাঁচানোর জন্য তৎক্ষণাৎ ব্রিজ খোলার আদেশ দেয়। ভারতীয় আধিকারিকদের এই সিদ্ধান্তের ফলে অনেকেই নেপাল থেকে ভারতে কাজ আর চিকিৎসা করাতে চলে আসেন। এবং যারা এদেশে আটকে পড়েছিলেন, তাঁরাও নিজের দেশে ফেরত চলে যান। এই আন্তর্জাতিক ব্রিজ খোলার ফলে ১৩৮ জন দুদেশের মধ্যে সফর করেন।

জানিয়ে দিই, চীনের উস্কানির ফলে নেপালি প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি (KP Sharma Oli) লাগাতার ভারত বিরোধী পদক্ষেপ নিচ্ছেন। কিন্তু সেখানকার সমস্ত নেতা, ওলি সরকারের মন্ত্রী আর সেখানকার মানুষ ভারতেরর গুরুত্ব জানেন, সেই কারণে ওনারাই প্রধানমন্ত্রী ওলির ভারত বিরোধী নীতির বিরোধিতা করছেন।

Back to top button