৬ মার্চ নয়, সন্দেশখালি সফরের জন্য ‘নারী দিবস’কেই বেছে নিলেন প্রধানমন্ত্রী, থাকবেন নির্যাতিতারা

বাংলা হান্ট ডেস্ক : সামনেই আন্তর্জাতিক নারী দিবস (Women’s Day)। আর ওই দিনই এরাজ্যের মায়েদের বোনদের সাথে জুড়তে চান প্রধানমন্ত্রী মোদী (Narendra Modi)। আগামী 8 মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে বারাসতে (Barasat) সভা রয়েছে তার। মঞ্চ থেকে তুলে ধরবেন সন্দেশখালির (Sandeshkhali) মহিলাদের দুঃখ দুর্দশার কথা। এমনকি সেখানে উপস্থিত থাকতে পারেন কয়েকজন নির্যাতিতা।

   

এর আগে বারাসতের সভাটি হওয়ার কথা ছিল 6 মার্চ। শনিবার রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে দিল্লিতে বৈঠক হয় বিজেপি হাই-কমান্ডের। এরপরই জানা যায় যে, আগামী 1 মার্চ আরামবাগ, 2 মার্চ কৃষ্ণনগর এবং 8 মার্চ মহাশিবরাত্রির দিন বারাসতে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিজেপি এই সভার নাম দিয়েছে ‘নারী শক্তি বন্দনা কর্মসূচি’।

শুরুর দিকে 6 মার্চ দিন ঠিক করা হয়, কিন্তু সন্দেশখালির দুর্দশার কথা তুলে ধরতে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিনটাকেই বেছে নেয় বিজেপি। সন্দেশখালিতে অভিযোগের আঙুল উঠছে রাজ্যর শাসকদলের দিকে। যেভাবে দিনের পর দিন রাতের পর রাত অকথ্য অত্যাচার নির্যাতন চালিয়েছে শেখ শাহজাহান এবং তার সাঙ্গপাঙ্গরা তার বিরুদ্ধেই স্বর চড়াতে চাইছে বিজেপি।

আরও পড়ুন : ‘আমার নোবেল পাওয়া উচিত’, ভরা মঞ্চে দাবি অরবিন্দ কেজরিওয়ালের, কটাক্ষ বিরোধীদের

সন্দেশখালিতে তৃণমূলের নেতাদের বিরুদ্ধে জমি দখল, নারী নির্যাতন সহ আরো একগুচ্ছ অভিযোগ রয়েছে। বছরের পর বছর চলে আসছে এই ঘটনা, আর সেসবই উঠে আসবে প্রধানমন্ত্রীর সভা থেকে। যদিও পুলিশের জালে ধরা পড়েছে শিবু হাজরা, উত্তম সর্দারদের মতো চুনোপুঁটি কিন্তু বাকি থেকে গিয়েছে শেখ শাহজাহানের মতো রাঘবোয়াল। গত 5 জানুয়ারি রেশন দুর্নীতি মামলায় ইডি আধিকারিকরা হানা দেওয়ার পর থেকেই তিনি বেপাত্তা।

আরও পড়ুন : সন্দেশখালি ইস্যুর মাঝে হাতিয়ার কেন্দ্রীয় বঞ্চনা! ভোটের মুখে ব্রিগেডে ‘জনগর্জন সভা’ তৃণমূলের

narendra modi indpendence day speech

অন্যদিকে এতদিনের অবিচার, কুবিচারে বিক্ষোভ বেড়েই চলেছে মহিলাদের। আর সেই ক্ষোভের আঁচ প্রধানমন্ত্রীর সভায় তুলে ধরতে চাইছে বিজেপি। এজন্য বারাসতে যে সভা আয়োজিত হবে সেখানে সন্দেশখালির নির্যাতিত মহিলাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারেন মোদী। মহিলাদের ওপর হওয়া অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হতে পারেন তিনি। আর এজন্যই আদর্শ দিন হিসেবে বেছে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিনটাকেই।

আরও পড়ুন : Paytm-র পর এবার Google Pay, এইদিন থেকে বন্ধ হচ্ছে পরিষেবা, বিপদে পড়ার আগেই জেনে নিন সবটা

প্রধানমন্ত্রীর বাংলা সফর প্রসঙ্গে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী বাংলায় তিনটি কর্মসূচি নিয়েছেন। ১ মার্চ আরামবাগে সভা করবেন তিনি। ২ তারিখে সভা হবে কৃষ্ণনগরে। ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস, ওই দিনই মহাশিবরাত্রি। তাই সে দিন প্রধানমন্ত্রী বারাসতে ‘নারী শক্তি বন্দনা কর্মসূচি’ পালন করবেন। সে দিন এক লক্ষ মহিলার উপস্থিতিতে সভা হবে।’’ তাঁর আরো বক্তব্য, ‘‘প্রধানমন্ত্রী বিধানসভা এবং লোকসভায় মহিলাদের জন্য এক তৃতীয়াংশ সংরক্ষণ করেছেন। স্বাধীনতার ৭৫ বছর পর নারী শক্তিকে সম্মান জানিয়েছেন। ওই দিন প্রধানমন্ত্রী মহিলাদের উদ্দেশে নিজের কথা বলবেন।’’

Moumita Mondal
Moumita Mondal

মৌমিতা মণ্ডল, গ্র্যাজুয়েশনের পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। বিগত ৩ বছরেরও বেশি সময় ধরে লেখালেখির সাথে যুক্ত। প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর