কাঙাল পাকিস্তানের অর্থব্যবস্থার থেকেও বড় হয়ে গেল টাটা গ্রুপ! পরিসংখ্যান দেখে ঘুম উড়েছে পড়শির

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এবার একটি অত্যন্ত চমকপ্রদ বিষয় সামনে এসেছে। যেটি জানার পর অবাক হবেন প্রত্যেকেই। মূলত, সম্প্রতি ভারতের (India) শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান টাটা গ্রুপ (Tata Group) ৩৬৫ বিলিয়ন ডলারের ভ্যালুয়েশনের ওপর ভর করে পাকিস্তানের (Pakistan) অর্থনীতিকে ছাড়িয়ে গেছে। শুধু তাই নয়, টাটা গ্রুপের একাধিক কোম্পানির শেয়ার গত এক বছরে বাম্পার রিটার্ন দিয়ে বিনিয়োগকারীদেরও মালামাল করেছে।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, টাটা গ্রুপ একদম লবণ থেকে শুরু করে বিমান পরিষেবা পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রেই বর্তমান সময়ে দাপট দেখাচ্ছে। আর এর ওপর ভর করেই টাটা গ্রুপ ভ্যালুয়েশনের দিক থেকে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের অর্থনীতির চেয়েও বড় হয়ে উঠেছে। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান অনুযায়ী, টাটা গ্রুপের বর্তমান মার্কেট ক্যাপ ৩৬৫ বিলিয়ন ডলার বা ৩০.৩ লক্ষ কোটি টাকাতে পৌঁছেছে।

Tata Group,Company,Share,Share Price,Share Market,India,National,International,Details,Reason,Pakistan,Economy,IMF,International Monetary Fund,Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor

এদিকে, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল তথা IMF (International Monetary Fund)-এর অনুমান অনুযায়ী, পাকিস্তানের GDP-র আকার প্রায় ৩৪১ বিলিয়ন ডলার। অন্যদিকে, শুধুমাত্র টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিসেস বা TCS-এরই মার্কেট ক্যাপ হল ১৫ লক্ষ কোটি টাকা বা ১৭০ বিলিয়ন ডলার। যেটি শুধুমাত্র ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম কোম্পানি নয়, বরং এটি পাকিস্তানের অর্থনীতির অর্ধেক অংশকে কভার করতে পারে।

আরও পড়ুন: হাতের মুঠোয় আসবে চাঁদ! চন্দ্রযান ৪-এ ধামাকা করে দেখাবে ISRO, আগের তুলনায় আরও “জটিল” হবে মিশন

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, ঋণের ভারে জর্জরিত পাকিস্তানের অর্থনীতির অবস্থা বিগত কয়েক মাস ধরে অত্যন্ত সঙ্কটজনক হয়ে উঠেছে। এদিকে, সাম্প্রতিক অতীতে টাটা গ্রুপের মার্কেট ক্যাপ উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এর পেছনের অন্যতম কারণ হল গত এক বছরে টাইটান, TCS এবং টাটা পাওয়ারের পাশাপাশি টাটা মোটরস এবং ট্রেন্টের শেয়ারে ঊর্ধ্বগতি রয়েছে। জেনে অবাক হবেন যে, টাটা গ্রুপের আটটি কোম্পানির শেয়ার গত এক বছরে বিনিয়োগকারীদের সম্পদ দ্বিগুণ করেছে। উল্লেখ্য যে, শেয়ার মার্কেটে টাটা গ্রুপের তালিকাভুক্ত ২৫ টি কোম্পানি রয়েছে। যার মধ্যে শুধুমাত্র একটি গত এক বছরে বিনিয়োগকারীদের নেগেটিভ রিটার্ন দিয়েছে।

আরও পড়ুন: ফিক্সড ডিপোজিটে মিলবে ৯.১০ শতাংশ সুদ, এই ৪ ব্যাঙ্ক বাড়িয়ে দিল রেট, গ্রাহকেরা হবেন মালামাল

এদিকে, শেয়ার বাজারে বিনিয়োগকারীদের মাল্টিব্যাগার রিটার্ন প্রদানকারী কোম্পানিগুলির মধ্যে অন্যতম একটি হিসেবে টাটা গ্রুপের ট্রেন্ট লিমিটেড শীর্ষে রয়েছে। এই কোম্পানির শেয়ার এক বছরে বিনিয়োগকারীদের ১৯৫ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে। পাশাপাশি, টাটা ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশনের শেয়ার বিনিয়োগকারীদের দিয়েছে ১৫৩ শতাংশ রিটার্ন। এদিকে, টাটা মোটরসের শেয়ার এক বছরে ১১৩ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে। এছাড়াও, টাটা পাওয়ার কোম্পানির শেয়ার এক বছরে ৮৩ শতাংশ, ইন্ডিয়ান হোটেলের শেয়ার ৬৭ শতাংশ এবং টাইটানের শেয়ার ৪৫ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে বিনিয়োগকারীদের।

Sayak Panda
Sayak Panda

সায়ক পন্ডা, মেদিনীপুর কলেজ (অটোনমাস) থেকে মাস কমিউনিকেশন এবং সাংবাদিকতার পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্স করার পর শুরু নিয়মিত লেখালেখি। ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর