AI কাড়তে পারবে না চাকরি! কর্মচারীদের স্বার্থে বড় সিদ্ধান্ত নিল মহিন্দ্রা, প্রশংসা দেশজুড়ে

বাংলা হান্ট ডেস্ক : প্রযুক্তির দুনিয়ায় বড়সড় ঝড় নিয়ে এসেছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (Artificial Intelligence)। রোবোটিক্স এবং আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের দুনিয়ায় ইতিমধ্যেই বহুদুর এগিয়ে গেছে প্রযুক্তি। মানুষের অজান্তেই কাজের বিকল্প হয়ে উঠতে পারে AI! অন্তত বিশেষজ্ঞদের ধারণা এমনটাই। এই কথা শোনার পর মাথায় হাত পড়েছে অনেকেরই। তারমাঝেই এবার মসীহা হয়ে সামনে এল জনপ্রিয় সংস্থা টেক মহিন্দ্রা (Tech Mahindra)।

ইতিমধ্যেই পরিষেবা গোছাতে ইতিমধ্যে AI ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ শুরু করতে শুরু করেছে বহুজাতিক সংস্থাগুলি। নিজেদের কর্মীরাও যাতে পিছিয়ে না থাকে সেই কারণে এক যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহিন্দ্রা। এইদিন সংস্থার গ্লোবাল চিফ পিপল অফিসার এবং হেড ওফ মার্কেটিং হর্ষবেন্দ্র সোইন জানিয়েছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশগুলিতে স্বাস্থ্য ক্ষেত্র, উৎপাদন এবং রিটেল সেক্টরে মনোযোগ দিচ্ছে টেক মহিন্দ্রা।

হর্ষবর্ধন আরও বলেছেন, “তাদের কর্মচারীদের মধ্যে যে প্রতিভা রয়েছে তা ভবিষ্যৎ প্রযুক্তির কথা মাথায় রেখে স্থিতিশীল রাখতে তাদের উপর বিনিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।” এই প্রসঙ্গে তার মন্তব্য, “আমরা জুন 2023 ত্রৈমাসিকে জেনারেটিভ এবং অন্যান্য AI প্ল্যাটফর্মগুলিতে প্রায় 8,000 কর্মীকে প্রশিক্ষিত এবং উন্নত করেছি।”

আরও পড়ুন : আর টাইপ নয়, এবার ভয়েস দিয়েই হবে UPI লেনদেন! কীভাবে? জানাল RBI

হর্ষবেন্দ্র সোইনের সংযোজন, “জেনারেটিভ এআই উক্ত শিল্পে বড় অবদান রাখতে চলেছে। যোগাযোগ থেকে পণ্য উত্পাদন পদ্ধতিকে পরিবর্তন করতে পারে এই প্রযুক্তি। পাশাপাশি এই দ্রুত রূপান্তর দক্ষতার চাহিদাতেও উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এনেছে। সংস্থাগুলিকে বাধ্য করেছে তারা তাদের কর্মীদের আপ-স্কিল বা দক্ষতা বৃদ্ধি করতে।”

আরও পড়ুন : মাত্র ১০ টাকায় স্বপ্ন পূরণ! দিঘা, মন্দারমনি ভুলে এবার ঘুরে আসুন তাজপুর থেকে, মিলবে বড় চমক

benefits of ai in the workplace

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে কোম্পানির আয় কমেছে প্রায় 36 শতাংশ। চলতি বছরেই অবসর নিতে পারেন সংস্থার সিইও এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর সি পি গুরনানি। তবে কোম্পানি থেকে অবসর নিলেও তিনি সংস্থার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, কোয়ান্টাম কম্পিউটিং, সাইবার সিকিউরিটি ক্ষেত্রে বৃদ্ধি নিয়ে আশাবাদী। উল্লেখ্য, বর্তমান দিনে AI-এর দৌড়ে প্রচুর সংস্থা মাঠে নেমে পড়েছে। মাইক্রোসফট, আইবিএম, অ্যাপেলের মতো বড় বড় সংস্থা রয়েছে এই তালিকায়।