‘আমাদের ৮৫ বিধায়ক, সবাই মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার যোগ্য’, ভোট দেওয়ার আগে গরুর পুজো করে বললেন কংগ্রেস সভাপতি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: তেলেঙ্গানায় (Telangana) ভোটগ্রহণ চলছে। ১১৯টি আসনে মোট ২ হাজার ২৯০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রাজ্যের ৩.২৬ কোটি ভোটার তাঁদের ভাগ্য নির্ধারণ করবেন। সব রাজনৈতিক দলের নেতারা তাঁদের ভোট প্রদানে উৎসাহের সঙ্গে অংশ নিচ্ছেন।

   

ভোট দিলেন ওই রাজ্যের কংগ্রেস সভাপতি রেভান্থ রেড্ডি (Revanth Reddy) এবং তাঁর স্ত্রী গীতা কোদাঙ্গালের ভিকারাবাদে তাঁদের বাসভবনে গরুপুজো করেছেন। এরপর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। রেড্ডি বলেন, তেলেঙ্গানায় ভালো দিন আসতে চলেছে। ‘দুরলা সরকার’ যাবে আর ‘প্রজলা সরকার’ আসবে।’ রেড্ডি আরও বলেন, ‘সরকার বেছে নেওয়া মানে ক্রিকেট দল বেছে নেওয়া। আমাদের ৮৫ জন বিধায়কই মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার যোগ্য।’

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির মতে, ‘১০ বছর ধরে কেসিআর সরকারের অধীনে রাজ্যের কৃষকরা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। যারা প্রথমবার ভোট দিচ্ছেন তারা তেলেঙ্গানার ভবিষ্যতকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। কংগ্রেস জনগণের প্রত্যাশা পূরণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাবে। দল দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করবে। ভারত জোড়ো যাত্রার পর তেলেঙ্গানায় অনেক পরিবর্তন হয়েছে। বিআরএস-বিজেপি-এআইএমআইএম একসঙ্গে কংগ্রেসকে হারাতে চাইছে।’

congress

রেড্ডি বলেন, ‘আমার কিছু বলার দরকার নেই।আপনারা জানেন কংগ্রেস পার্টি কেমন কাজ করছে। আমরা ভারত জোড়ো যাত্রার পর বিষয়গুলো নিয়ে কৌশল তৈরি করেছি। ফলাফল ৩ ডিসেম্বর এবং শপথ ​​গ্রহণ অনুষ্ঠান ৯ ডিসেম্বর।মানুষ ইতিমধ্যে এখানে কংগ্রেস সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তেলেঙ্গানায় ‘সুদিন’ আসতে চলেছে, ‘দুরলা সরকার’ যাবে, ‘প্রজালা সরকার’ আসবে।