টাইমলাইনভারত

দেশের ৬৩ জন ধনকুবেরের সম্পদ ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের বাজেটের অঙ্কের থেকেও বেশি! মোদির ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশ’ স্লোগান ব্যর্থ!  

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কেন্দ্রীয় বাজেট পেশের আগে এক সমীক্ষায় চাপের মুখে পড়ে গেল মোদি সরকার। ক্ষমতায় এসে মোদির স্লোগান ছিল, ‘সব কা সাথ, সব কা বিকাশ।’ কিন্তু বাস্তব রিপোর্ট অন্য কথাই বলছে।সাধারণ মানুষের উন্নয়ন এই ৬ বছরে সেভাবে চোখে পড়ার মতো তেমন কিছুই হয়নি বলে মত বিরোধীদের।

এক রিপোর্টে সামনে এল যে তথ্য, তাতে বলা হয়েছে, দেশের মুষ্টিমেয় ধনকুবেরদের যা আর্থিক পরিণতি, তাতে তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতোই!

রিপোর্ট বলছে, ভারতের ৬৩ জন ধনকুবেরের কাছে যা সম্পদ রয়েছে, তা দেশের ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষের বাজেটের অঙ্কের থেকে বেশি। শুধু তাই নয়, ভারতের এক শতাংশ সবথেকে বিত্তশালী নাগরিকের সম্পদ দেশের দরিদ্রতম ৯৫ কোটি ৩০ লক্ষেরও বেশি মানুষের মোট অর্থের চার গুণেরও বেশি। এই রিপোর্টের ফলে ভারতে ধনী ও দারিদ্রে মধ্যে বৈষম্য আরও স্পষ্ট হয়ে গেল বলেই মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

অক্সফাম ইন্ডিয়ার এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতেই মোদির স্লোগানকে কটাক্ষ করতে শুরু করে দিয়েছে বিরোধীরা। অক্সফাম ইন্ডিয়ার সিইও অমিতাভ বেহার বলেন, ধনি-দরিদ্রের ভারষাম্য ঠিক রাখার জন্য কিছু নীতি খুব শীঘ্রই আরোপ করা জরুরী। তা না হলে এই বিরাট আর্থিক বৈষম্য দূর করা অসম্ভব।

Back to top button
Close