বিনিয়োগ করতে হবে মাত্র ২,০০০ টাকা! নতুন বছরে আপনাকে মালামাল করে দেবে এই ৩ টি ব্যবসা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে প্রথাগতভাবে চাকরির (Job) পথে না হেঁটে অনেকেই ব্যবসার (Business) প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছেন। সেক্ষেত্রে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে এবং চাহিদার ওপর ভর করে বিভিন্ন নিত্য নতুন ব্যবসায়িক উদ্যোগও গ্রহণ করছেন বেশ কিছুজন। যেগুলির মাধ্যমে মিলছে সফলতাও। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এমন কিছু ব্যবসায়িক উদ্যোগ রয়েছে যেগুলি শুরু করার ক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন পড়বে না মোটা টাকার বিনিয়োগ। অর্থাৎ, আপনি ঝুঁকিহীন ভাবেই শুরু করতে পারবেন নিজের উদ্যোগ। এমতাবস্থায়, আপনি যদি নতুন বছরেই কোনো ব্যবসা শুরু করার কথা ভেবে থাকেন সেক্ষেত্রে আমরা আপনাকে আজ কিছু দুর্দান্ত বিজনেস আইডিয়ার প্রসঙ্গে জানাতে চলেছি। যেগুলি আপনি নামমাত্র বিনিয়োগেই শুরু করে প্রতিষ্ঠিত হতে পারবেন।

   

১. যোগব্যায়াম শেখানো: বর্তমানে স্বাস্থ্য সচেতনতার বিষয়টি ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমনকি, শরীরকে সুস্থ এবং চাঙ্গা রাখতে অনেকেই নিয়মিত ভাবে যোগব্যায়ামও করেন। এমতাবস্থায়, আপনি যদি শহরাঞ্চলের কোনো সোসাইটিতে থাকেন কিংবা মফস্বল এলাকায় থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি যোগব্যায়াম শেখানো শুরু করতে পারেন। এদিকে, আপনি যদি যোগব্যায়াম না জানেন সেক্ষেত্রে মাত্র কয়েকদিনেই আপনি ইউটিউব থেকে এটি শিখে যেতে পারেন। এটির খরচ সম্পর্কে জানাতে গেলে বলতে হয়, এরজন্য আপনাকে কেবল একটি ম্যাট কিনতে হবে। যেটির দাম হয় ৫০০ থেকে ১,০০০ টাকার মধ্যে। তারপর আপনাকে প্রতিদিন সকালে কিংবা কোনো নির্দিষ্ট সময়ে যোগব্যায়াম শেখাতে হবে।

These 3 businesses will make you rich in the new year

আপনি এটি নিজের বাড়িতে কিংবা কোনো পার্কেও শেখাতে পারেন। ধীরে ধীরে সবাই জানতে পারলে আপনার কাছে যোগব্যায়াম শেখার জন্য ক্রমশ ভিড় বৃদ্ধি পাবে। এদিকে, আপনি যদি প্রত্যেকের কাছে যোগব্যায়ামের শেখানোর জন্য প্রতি মাসে ৫০০ টাকা নেন এবং ৫০ জন আপনার কাছে শিখতে আসেন, সেক্ষেত্রে আপনি এটি থেকে প্রতি মাসে ২৫,০০০ টাকা উপার্জন করতে পারেন। পাশাপাশি, আপনি যদি সকাল এবং সন্ধ্যে পৃথক পৃথক ভাবে সেখান তাহলে এই অঙ্কটি প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত যেতে পারে।

আরও পড়ুন: একটা সময়ে মন্দিরে তুলতেন ভক্তদের ছবি! আজ ৬,৫০০ কোটি টাকার কোম্পানির মালিক নরেন্দ্র

২. ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের কাজ: আপনি যদি সারাদিন নিজেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যস্ত রাখেন, তাহলে সেক্ষেত্রেও আপনার জন্য একটি বিজনেস আইডিয়া আছে। আপনি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে কিছু জ্ঞান অর্জন করতে হবে। এমতাবস্থায়, আজকের ডিজিটাল যুগে ইউটিউবে এই প্রসঙ্গে সব ধরণের তথ্য পাওয়া যায়। পাশাপাশি, Coursera এবং Udemy-র মাধ্যমে আপনি এক থেকে দুই হাজার টাকায় একটি বেসিক সার্টিফিকেট কোর্সও করে ফেলতে পারবেন এবং সেখান থেকে বিষয়টি শিখে আপনি বাড়িতে বসেই এই কাজ শুরু করতে পারেন। বর্তমানে আমাদের দেশে অনেকেই এই ধরণের ব্যবসা করে প্রতিমাসে ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা আয় করছেন।

আরও পড়ুন: ২২৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ সংক্রমণ! একদিনেই আক্রান্ত হাজারের কাছাকাছি, ফের ভয় ধরাচ্ছে করোনা

৩. ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করা: আপনি ইউটিউবকে কাজে লাগিয়েও প্রতি মাসে মোটা টাকা উপার্জন করতে পারেন। বর্তমানে এমন অনেক ক্রিয়েটাররা রয়েছেন যাঁরা এর মাধ্যমে কোটিপতি হয়েছেন। আপনিও যদি ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে যেকোনো বিষয় নির্বাচন করে তার ওপর ভিডিও তৈরি করতে হবে। ভিডিও তৈরির জন্য দরকার পড়বে একটি ক্যামেরা, মাইক এবং রিং লাইট। তবে, আপনি আপনার স্মার্টফোনের ক্যামেরাকেও এক্ষেত্রে কাজে লাগাতে পারেন। আপনাকে প্রতিদিন একটি বেস্ট টপিকের ওপর ভিডিও বানাতে হবে। তারপর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথে আপনার উপার্জনও ধীরে ধীরে শুরু হবে।

সম্পর্কিত খবর