২২৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ সংক্রমণ! একদিনেই আক্রান্ত হাজারের কাছাকাছি, ফের ভয় ধরাচ্ছে করোনা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: দেশে (India) ফের ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা (Corona Virus) আক্রান্তের সংখ্যা। শুধু তাই নয়, এবার সামনে এসেছে উদ্বেগজনক পরিসংখ্যানও। ইতিমধ্যেই, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে যে, গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমণের ৮৪১ টি নতুন কেস রিপোর্ট করা হয়েছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এই সংক্রমণের হার গত ২২৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ।

   

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি, করোনার অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪,৩০৯। সকাল ৮ টা পর্যন্ত মন্ত্রকের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় কেরালা, কর্ণাটক এবং বিহার থেকে করোনায় একজন করে রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

Corona infection is increasing gradually

জানিয়ে রাখি যে, এর আগে গত ১৯ মে দেশে ৮৬৫ টি নতুন সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছিল। মূলত, বর্তমানে ঠান্ডা এবং ভাইরাসের নতুন সাব-ভেরিয়েন্টের কারণে সাম্প্রতিক দিনগুলিতে সংক্রমণের ঘটনা বেড়েছে। এর আগে, গত ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা দুই অঙ্কে নেমে এসেছিল। কিন্তু, তারপরে ফের তা বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন: ঘুম উড়বে সন্ত্রাসবাদীদের! সেনাবাহিনীর হাতে আসছে অত্যাধুনিক বুলেট প্রুফ গাড়ি, চমকে দেবে এটির ফিচার্স

দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে সংক্রমণ: ২০২০ সালের শুরু থেকে গত ৪ বছরে, সারা দেশে ৪.৫ কোটিরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। পাশাপাশি, এই সময়ের মধ্যে ৫.৩ লক্ষেরও বেশি জন করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন। এদিকে, স্বাস্থ্য মন্ত্রকের ওয়েবসাইট অনুসারে জানা গিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ৪.৪ কোটিরও বেশি মানুষ এই সংক্রমণ থেকে সেরে উঠেছেন। অর্থাৎ, রিকভারি রেট হল ৯৮.৮১ শতাংশ। মন্ত্রকের মতে, এখনও পর্যন্ত দেশে করোনা ভ্যাকসিনের ২২০.৬৭ কোটি ডোজ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: কলকাতার এই কফি শপই এবার ঝড় তুলেছে নেটমাধ্যমে! এখানে এলে চমকে যাবেন আপনিও

মহারাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত ১৭২ জন: শনিবার মহারাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসের ১৭৩ টি নতুন কেস রিপোর্ট করা হয়েছে। তবে, সংক্রমণের কারণে কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। গত ২৪ থেকে ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে মহারাষ্ট্রে ৬২০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যেখানে ১৭ থেকে ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে এই সংখ্যা ছিল ১০৩ টি। এদিকে, শনিবার পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে ওমিক্রন সাবভেরিয়েন্ট JN.1-এর ১০ টি কেস প্রকাশ্যে এসেছে। এই সংক্রমণের ঘটনাগুলি থানে, পুণে, আকোলা এবং সিন্ধুদুর্গ জেলা থেকে সামনে এসেছে।