অভিষেক-গড়ে BJP-র ট্রাম্প কার্ড ববি! অভিজিৎকে নিয়ে প্রথম প্রতিক্রিয়া তৃণমূল সেনাপতির! বললেন…

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে ডায়মন্ড হারবারের (Diamond Harbour) প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে বিজেপি। ধাপে ধাপে বাংলার বাকি ৪১টি আসনের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করলেও, অভিষেক-গড়ে কে দাঁড়াচ্ছেন তা নিয়ে জল্পনা জিইয়ে রেখেছিল গেরুয়া শিবির। সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে উঠে এসেছিল বহু হেভিওয়েটের নাম। তবে শেষ অবধি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) প্রতিপক্ষ হিসেবে স্থানীয় নেতা অভিজিৎ দাস ওরফে ববির ওপর আস্থা রাখল বিজেপি (BJP)।

জানা যাচ্ছে, ডায়মন্ড হারবারের পদ্ম প্রার্থী অভিজিৎ (Abhijit Das Bobby) এর আগে রাজ্য বিজেপির নির্বাচন ম্যানেজমেন্টের কো-কনভেনার হিসেবে কাজ করেছেন। বর্তমানেও বিজেপির ইলেকশন সংক্রান্ত ম্যানেজমেন্ট টিমের গুরুত্বপূর্ণ অংশ তিনি। মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার নিজে ডায়মন্ড হারবারের প্রার্থী হিসেবে অভিজিতের (Abhijit Das) নাম প্রস্তাব করেছিলেন। এরপর দীর্ঘ আলোচনা শেষে তাঁকেই টিকিট দেয় দল। মঙ্গলবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতর থেকে ঘোষিত হয় অভিজিতের নাম।

দীর্ঘ জল্পনা-কল্পনা শেষে প্রতিপক্ষের নাম ঘোষণা। কী বলছেন তৃণমূলের (TMC) সেকেন্ড ইন কমান্ড? অভিষেককে এই প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করা হলে শুধু বলেন, ‘ভালো ভালো ভালো’। প্রতিপক্ষকে নিয়ে যে তিনি বিশেষ চিন্তিত নন, তা তৃণমূল ‘সেনাপতি’র ‘তিন ভালো’ থেকেই বেশ বুঝে নেওয়া যায়।

আরও পড়ুনঃ চাকরিপ্রার্থীদের প্রতীক্ষার অবসান! বড় রায় কলকাতা হাইকোর্টের, এবার হবে বিশাল শিক্ষক নিয়োগ

উল্লেখ্য, এর আগেও ভোট ময়দানে মুখোমুখি হয়েছেন অভিষেক-অভিজিৎ। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল ‘সেনাপতি’র বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। সেবার অভিষেক ৫ লক্ষেরও বেশি ভোট পেয়েছিলেন। অন্যদিকে অভিজিতের ঝুলিতে ছিল ২ লক্ষের কিছু বেশি ভোট। ২০০৯ সালেও এই আসন থেকে লড়ে পরাজিত হয়েছিলেন তিনি। সেবার সাকুল্যে ৩৭ হাজার মতো ভোট পেয়েছিলেন।

abhishek abhijit2

২০১৪ সালে অভিষেকের বিরুদ্ধে বিরাট ব্যবধানে পরাজিত হওয়ার পর ২০১৯ সালে টিকিট পাননি অভিজিৎ। পাঁচ বছরের ব্যবধানে ফের লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী করা হল তাঁকে। গেরুয়া শিবিরের কথায়, ডায়মন্ড হারবারকে হাতের তালুর মতো চেনেন তাঁদের প্রার্থী। সেই কারণেই অভিষেকের বিরুদ্ধে স্থানীয় নেতা অভিজিতের ওপর আস্থা রেখেছে দল।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর