টাইমলাইনভারতরাজনীতি

ত্রিপুরায় কৃষকের মেয়েকে চিকিৎসার ভুয়ো প্রতিশ্রুতি, তৃণমূলের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ অসহায় বাবার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মৃত্যু পথযাত্রী মেয়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে নাজেহাল হলেন অসহায় বাবা। অভিযোগ, সাহায্যের আশ্বাস দিয়েও শেষ মুহূর্তে পাশ থেকে সরে যান স্থানীয় তৃণমূলের (tmc) রাজ্য নেতা আশীষ লাল সিং। অবশেষে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিকের দারস্থ হয়ে সাহায্য প্রার্থনা করেন রসময় নম।

ঘটনাটি ঘটেছে ত্রিপুরার (tripura) শিবনগর গ্রামে। ওই এলাকার কাঞ্চনপুর মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী দেবযানী নমর দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে যাওয়ায়, মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে দরিদ্র কৃষক পরিবারের। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, দ্রুতই কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট করাতে হবে। এই অবস্থায় বাবা রসময় নম একটা কিডনি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও, তা ট্রান্সপ্ল্যান্ট করার অর্থ যোগার করতে অপারক তিনি এবং তাঁর পরিবার। সেই কারণেই সাহায্য প্রার্থনা করেন তিনি।

গরীব কৃষকের এই সংকটময় পরিস্থিতি দেখে এগিয়ে আসেন পাড়াপ্রতিবেশী, বিভিন্ন ক্লাব, সামাজিক সংস্থা, এনজিও। দেবযানীর অসুস্থতার কথা বিবেচনা করে অনেকেই সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসে। এই অবস্থায় স্থানীয় তৃণমূলের রাজ্য নেতা আশীষ লাল সিং রসময় বাবুর পাশে এসে বলেন, দেবযানীর চিকিৎসার সমস্ত খরচ দেবেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পরদিনই কলকাতার তৃণমূল দল এবং তৃণমূলের আইটি সেল বিষয়টিকে নিয়ে প্রচারে নামে। দেবযানীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা তো দূরস্তর, এই বিষয়টিকে প্রচারের আলোয় এনে নিজেদের আখের গোছাতেই ব্যস্ত ছিল বলে অভিযোগ করেলন রসময় বাবু। কারণ এই ঘটনার ফলে, সাধারণ মানুষের থেকে আসা সাহায্য যেমন একদিকে বন্ধ হয়ে যায়, তেমনই তারপর থেকে আর কোন খোঁজ পাওয়া যায় না আশীষ লাল সিং-রও।

ফোন ধরলেও বিষয়টা এড়িয়ে গিয়ে চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান আশীষ লাল সিং। বিষয়টি স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের জানালেও, বিশেষ কোন লাভ হয় না। অবশেষে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিকের দারস্থ হয়ে সাহায্য প্রার্থনা করেন রসময় বাবু। তাঁর অনুরোধে দিল্লীর এইমসে দেবযানীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেন প্রতিমা ভৌমিক।

এই ঘটনায় তৃণমূলের দিকে সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়ে, দুঃসময়ে সরে যাওয়ার অভিযোগ করেছেন অসহায় বাবা রসময় নম।

Related Articles

Back to top button