বড় আপডেট পেলেন রোহিতরা! ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপে নামার আগে আনন্দে নেচে উঠবে ভারতীয় দল

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্কঃ ভারতীয় দল (Indian Cricket Team) এই মুহূর্তে এশিয়া কাপ (2023 Asia Cup) চ্যাম্পিয়ন। বিশ্বকাপ (2023 ODI World Cup) শুরুর আগে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকে দেশের মাটিতে তিন ম্যাচের ওডিআই সিরিজে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই হারিয়ে দিয়েছে মেন ইন ব্লুজ। আর এই জয় এসেছে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা কুলদীপ যাদব-দের মতো তারকাদের ছাড়াই। বিশ্বকাপের আগে এই বিষয়গুলি আত্মবিশ্বাস বাড়াচ্ছে গোটা দলের।

   

যেহেতু ১২ বছর পর আবার দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ খেলতে নামছে ভারত তাই তাদের ওপর প্রত্যাশার চাপও থাকবে অনেক বেশি। কোনওরকম খারাপ ফলাফলের প্রভাব অনেক বেশি হবে রোহিত শর্মাদের ওপর। তেমনটা যাতে না হয় তার জন্য সঠিক প্রস্তুতি এবং পরিকল্পনাটা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। সেই লক্ষ্যেই রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলির মতো তারকারা অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ ওডিআই ম্যাচটি খেলবেন। এরপর ৮ ই অক্টোবর নিজেদের প্রথম ম্যাচে নামার আগে আরও দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ভারত।

ভারতীয় দল এশিয়া কাপের আগে খুব একটা ভালো ছন্দ ছিল না। গত বছরের শেষে বাংলাদেশের মাটিতে ওডিআই সিরিজ হারতে হয়েছিল তাদের। এরপর ঘরের মাঠে দুর্বল শ্রীলঙ্কা এবং দ্বিতীয় সারির নিউজিল্যান্ড দলকে হারালেও পূর্ণশক্তির অস্ট্রেলিয়া ভারতের মাটিতে ভারতকে ওডিআই সিরিজে হারিয়ে গিয়েছিল। এরপর বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জনই করতে না পারা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে অনেক ঘাম ঝরিয়ে তবে ওডিআই সিরিজ জিততে হয়েছিল ভারতকে। তবে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স দেখে মনে হচ্ছে যে ভারতীয় দল সেই ভুলগুলো থেকে শিক্ষা নিয়েছে।

team india tomorrow

আরও পড়ুন: ফের বড় প্রশ্নের মুখোমুখি পড়লো BCCI! বিশ্বকাপের আগে নতুন করে চাপে দ্রাবিড়

এর মধ্যে ভারতীয় দল একটি বিশেষ তৃপ্তি নিয়ে ওডিআই ফরম্যাটের বিশ্বকাপে মাঠে নামতে চলেছে। অস্ট্রেলিয়াকে সিরিজের প্রথম ম্যাচে হারানোর পরেই তারা আইসিসির ওডিআই র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থানে পৌঁছে গিয়েছে। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে এক ধাপ নামিয়ে এই স্থান কেড়ে নিয়েছে ভারত। বিশ্বকাপের আগে এই ঘটনা তাদেরকে তৃপ্তি দিচ্ছে আরও একটা বিশেষ কারণে।

আরও পড়ুন: BCCI-কে বিপাকে ফেলতে চেয়েছিল! বেতন না পেয়ে পাক ক্রিকেটাররাই পাল্টা হুমকি দিল PCB-কে

২০১৫ এবং ২০১৯ ওডিআই বিশ্বকাপের ক্ষেত্রে একটা ব্যাপার ঘটেছিল যা দুই ক্ষেত্রেই সমান ছিল। ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া ওডিআই ফরম্যাটে শীর্ষস্থানে ছিল বিশ্বকাপ শুরুর আগে। মূল আয়োজক দেশও তারাই ছিল। এরপর দেশের মাটিতে বিশ্বকাপও জয় করে তারা। ২০১৯ সালে ইংল্যান্ড ওডিআই দলের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার ঘটেছিল। ভারতের ক্ষেত্রে প্রথম দুটি শর্ত পূরণ হয়ে গিয়েছে। এবার তৃতীয় শর্ত হিসেবে কি ভারতীয় দল বিশ্বকাপ জিতে এই ধারা বজায় রাখতে পারবে। এই প্রশ্নের উত্তর আর দুই মাসের মধ্যেই পাওয়া যাবে।

 

Avatar
Reetabrata Deb

সম্পর্কিত খবর