জেলবন্দি পার্থর জীবনে ঘোর দুঃসংবাদ! ভোটের মধ্যে যা করল তৃণমূল … ঘুম উড়ল প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর!

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বিগত প্রায় দু’বছর ধরে জেলবন্দি পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। জেলের চার দেওয়ালের মধ্যেই জীবন কাটছে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর। ইডির হাতে গ্রেফতার হওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই তৃণমূলের (Trinamool Congress) সকল পদ থেকে তাঁকে সরিয়ে দেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার যেমন লোকসভা ভোটের আবহে জানা গেল, পার্থ বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট পরিচালনার দায়িত্বটাও দলের আরেক আদি নেতার হাতে তুলে দিয়েছে জোড়াফুল শিবির।

২০২২ সালের জুলাই মাস থেকে জেলবন্দি বেহালা পশ্চিমের (Behala West) বিধায়ক পার্থ। ২০০১ সালের পর এই প্রথম তাঁর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া কোনও নির্বাচন হচ্ছে রাজ্যে। এই আবহে পার্থর বিধানসভা কেন্দ্রের ভোট পরিচালনার দায়িত্ব দলের আদি নেতা অঞ্জন দাসের (Anjan Das) হাতে তুলে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। জোড়াফুল শিবির সূত্রে জানা যাচ্ছে, অঞ্জনকে সকল দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।

দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলের অংশ বেহালার ভূমিপুত্র অঞ্জন। একসময় বেহালা পশ্চিমের অধীন ১২৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হয়েছিলেন তিনি। ২০০০ সালে তৃণমূল যখন কলকাতা পুরসভা দখল করেছিল, সেই সময় বোরো ১৪-এর চেয়ারম্যান হন এই নেতাই। বর্তমানে অঞ্জনের স্ত্রী সংহিতা ১২৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং বোরো ১৪-এর চেয়ারপার্সন। সব মিলিয়ে, বেহালা পশ্চিমকে অঞ্জনের ‘খাসতালুক’ বলতে খুন একটা ভুল হয় না। সেই সঙ্গেই ভোটে লড়ার অভিজ্ঞতা এবং দলের হয় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতাও রয়েছে তাঁর। সেই কারণে লোকসভা ভোটের আবহে এমন অভিজ্ঞ নেতার হাতে বেহালা পশ্চিমের দায়িত্ব তুলে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

আরও পড়ুনঃ জলপাইগুড়ি রামকৃষ্ণ মিশনের ঘটনায় ভীত, এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তার আর্জি জানালেন কার্তিক মহারাজ

উল্লেখ্য, কলকাতা পুরসভার ১১৮-১১৯ এবং ১২৫-১৩২ নং ওয়ার্ড বেহালা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত। পার্থ যে পাঁচবার এই কেন্দ্র থেকে জিতে বিধায়ক হয়েছেন, প্রত্যেকবার তাঁর মুখ্য নির্বাচনী এজেন্ট ছিলেন অঞ্জন। শুধু তাই নয়, লোকসভা ভোটে বেহালা পশ্চিমে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীদের প্রতিনিধিও তিনিই হতেন। সব মিলিয়ে বেশ অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এক ব্যক্তি অঞ্জন। তৃণমূলের একাংশের অনুমান, সেই কারণেই পার্থর অনুপস্থিতিতে বেহালা পশ্চিমে নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব তাঁর কাঁধে তুলে দিয়েছে জোড়াফুল শিবির।

Mamata Banerjee Anjan Das

এই বিষয়ে অঞ্জনকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘দল আমায় কী দায়িত্ব দিয়েছে সেটা দলের ভেতরের বিষয়। আমি সংবাদমাধ্যমের কাছে এই নিয়ে কিছুই বলতে পারব না’। পার্থর অনুপস্থিতিতে বেহালা পশ্চিমের নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব এই অভিজ্ঞ নেতার হাতেই তুলে দিয়েছে তৃণমূল শিবির।

Sneha Paul
Sneha Paul

স্নেহা পাল, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তরের পর সাংবাদিকতা শুরু। বিগত প্রায় ২ বছর ধরে বাংলা হান্ট-এর কনটেন্ট রাইটার হিসেবে নিযুক্ত।

সম্পর্কিত খবর