টাইমলাইনভারতরাজনীতি

সরকারি বাসভবন ছেড়ে মাতোশ্রীতে গেলেন উদ্ধব, শিন্ডেকে আগামী মুখ্যমন্ত্রী করার প্রস্তাব শরিকদের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আশঙ্কাই সত্যি হলো। কাজকর্ম চলছিল বুধবার সন্ধে থেকেই। অবশেষে একে একে বের করে নেওয়া হলো সমস্ত জিনিসপত্র। রাতেই মুম্বাইয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন ‘বর্ষা’ ছেড়ে মাতোশ্রীতে চলে গেলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তবে শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর পদেই থাকবেন উদ্ধব। আপাতত তিনি ইস্তফা দিচ্ছেন না। তবে দলীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার এবং কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব উদ্ধবকে পরামর্শ দিয়েছেন, কোনওরকম শর্ত না চাপিয়ে তিনি পদত্যাগ করুন। শিবসেনা বিদ্রোহী একনাথ শিন্ডেকে মুখ্যমন্ত্রী করা হোক। এতে সরকার এবং শিবসেনা দুয়েরই সম্মান বাঁচবে। আটকানো যাবে বিজেপিকেও।

মহারাষ্ট্রের সিংহাসন টিকিয়ে রাখার জন্য বুধবার সারাদিনই চলেছে নানারকম নাটক। শোনা যাচ্ছে, বিজেপি শাসিত গুজরাত থেকে সোজা গুয়াহাটিতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন একনাথ শিন্ডের নেতৃত্বে শিবসেনার বিদ্রোহী বিধায়করা। গতকাল সন্ধেয় আরও চারজন বিধায়ক সেখানে গিয়ে উপস্থিত হন বলে জানা যাচ্ছে। এদিকে রাতের মধ্যেই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন বর্ষা ছেড়ে চলে যেতে দেখা যায় উদ্ধব ঠাকরেকে। বাসভবন থেকে সব জিনিসপত্র এক এক করে বের করে গাড়িতে তোলা হয়। উদ্ধব চললেন পৈতৃক বাংলো ‘মাতোশ্রী’-তে। উদ্ধব ঠাকরে গাড়িতে রওনা দেওয়ার কিছুক্ষণ পরেই তাঁর স্ত্রী এবং রাজ্যের মন্ত্রী তথা উদ্ধবের ছেলে আদিত্য ঠাকরে ও তেজস ঠাকরেকে ‘মাতোশ্রী’ থেকে বেরোতে দেখা যায় বলে খবর।

মহারাষ্ট্রের জোট সরকারের অস্তিত্ব চরম সংকটে। জানা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর পদে একনাথ শিন্ডেকে বসানোর প্রস্তাব দেন এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার। বিশেষ সূত্রে খবর, কংগ্রেসও এই প্রস্তাবে সমর্থন করে।

একনাথ শিন্ডে বিধায়কদের নিয়ে প্রথমে যান সুরাট। পরে গুজরাত ছেড়ে শিন্ডে চলে যান আর এক বিজেপি শাসিত রাজ্য অসমে। তিনি দাবি করেন তাঁর সঙ্গে রয়েছে ৪৬ জন বিধায়ক। এবং যত সময় যাবে তা আরও বাড়বে। এরপরেই মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন ‘বর্ষা’ ছেড়ে সপরিবারে বেরিয়ে যান উদ্ধব ঠাকরে। তিনি একনাথ শিন্ডে সহ সমস্ত বিদ্রোহী বিধায়কদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি ঘটনাচক্রে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলাম। এই পদে বসার আমার কোনও লোভ আমার ছিল না। আমি এই পদ ছেড়ে দিচ্ছি। কিন্তু তার আগে আপনারা নিশ্চিত করুন, এরপর যিনি মুখ্যমন্ত্রী হবেন তিনি শিবসেনা থেকেই হবেন।’ তবে আরব সাগরের তীরে যে এখনও অনেক নাটক বাকি তা বলাই বাহুল্য।

Related Articles

Back to top button