টাইমলাইনভিডিও

চলছিল বাসা ভাঙার চেষ্টা, বিশালাকার JCB-র সামনে দাঁড়িয়ে ঝগড়া করল ‘মা পাখি”! ভাইরাল ভিডিও

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রত্যেক মায়ের কাছেই তাঁর সন্তান সবচেয়ে দামি। সন্তানকে ভালো রাখতে তথা তাদের জীবন বাঁচাতে কার্যত সমস্ত অসম্ভবকেই সম্ভব করে তোলেন মায়েরা। এমনকি, সন্তানের বিপদ দেখলে নিজের জীবনকেও বাজি রাখতে উদ্যত হন তাঁরা। এমতাবস্থায়, শুধুমাত্র মনুষ্য সমাজেই যে এই চিত্র পরিলক্ষিত হয় তা না, বরং জীবকুলের প্রতিটি প্রাণীর ক্ষেত্রেই এই আবেগ প্রস্ফুটিত হয়।

সম্প্রতি এইরকমই একটি দৃশ্য ভাইরাল হয়েছে নেটমাধ্যমে। আর যা দেখে আবেগাপ্লুত হয়েছেন নেটিজেনরা। নিশ্চিত বিপদের আঁচ বুঝতে পেরে একটি মা পাখি যেভাবে তার বাসা এবং ডিমগুলিকে রক্ষা করবার জন্য প্রানপন লড়াই করেছে তা দেখে সত্যিই অবাক হয়েছেন নেটিজেনরা। পাশাপাশি, সন্তানদের রক্ষার্থে যে প্রতিটি মা-ই নিজেদের উজাড় করে দেন সেই সত্যই যেন ফের একবার প্রমাণিত হল।

আর ওই ভিডিওটিই এখন ঝড় তুলেছে নেটমাধ্যমে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমান সময়ে ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম-টুইটারের যুগে আমরা সকলেই দিনের একটা বড় সময়ে নেটমাধ্যমে কাটাতে ভালোবাসি। প্রতি মুহুর্তের গুরুত্বপূর্ণ আপডেটের পাশাপাশি মনোরঞ্জনের জন্যও আমরা সেখানে খুঁজে পাই হাজার হাজার নিত্য-নতুন ভাইরাল ভিডিও।

সেগুলির মধ্যে বিভিন্ন কন্টেন্টের ভিডিও মজুত থাকলেও সাধারণত পশু-পাখি সংক্রান্ত ভিডিওগুলি দেখতে পছন্দ করেন সবাই। তাদের অকৃত্রিম সব আচরণ খুব সহজেই আকৃষ্ট করে মানুষের মন। আর যার ফলে এইরকম ভিডিও নেটমাধ্যমে আসা মাত্রই তা ভাইরাল হওয়ার সুবাদে পৌঁছে যায় সকলের কাছে।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে যে, একটি জায়গায় খননকার্যের সময়ে সেখানে একটি পাখির বাসা এবং তাতে কিছু ডিম দেখতে পাওয়া যায়। এমনকি, মা পাখিটিও উপস্থিত ছিল সেখানে। যখনই খননকার্যের জন্য ব্যবহৃত গাড়িটি সেই পাখির বাসাটির দিকে এগিয়ে আসে ঠিক তখনই বিপদের আঁচ বুঝতে পেরে চিৎকার করতে থাকে মা পাখিটি।

গাড়িটি যতই এগিয়ে আসে ততই তীক্ষ্ণ স্বরে চিৎকার করতে থেকে তার উপস্থিতি জানাতে থাকে সে। একটা সময়ে গাড়িটি রীতিমত সেটির কাছাকাছি চলে এলেও উড়ে না গিয়ে নিজের বাসা এবং ডিমগুলিকে রক্ষার জন্য পাখিটিকে ডানা মিলে দিতেও দেখা যায়। বারংবার এইভাবেই গাড়িটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে থাকে সে। এমনকি, ভিডিওটির শেষপ্রান্তে দেখা যায় গাড়িটি সেখান থেকে চলে যাচ্ছে।

আর এই ভিডিওটিই বর্তমানে কাঁপিয়ে দিচ্ছে নেটমাধ্যম। সন্তানদের বাঁচাতে এক মায়ের এহেন করুণ আর্তি দেখে আবেগে ভেসেছেন নেটিজেনরাও। ভিডিওটি টুইটারে শেয়ার করেছেন আইএএস অফিসার অবনীশ শরণ। ইতিমধ্যেই ১ লক্ষ ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ ভিডিওটি দেখেছেন। পাশাপাশি, এটি দেখে নিজেদের প্ৰতিক্রিয়াও জানিয়েছেন নেটিজেনরা। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, “মায়েরা সবসময়ই এক একজন যোদ্ধা হন, তাঁরা সবসময় তাঁদের সন্তানের ভালো চান”। পাশাপাশি, আরেকজন লিখেছেন, “মায়ের ভালোবাসা সকলের জন্যই এক”।

Related Articles