ক্লাবগুলিকে আর টাকা নয়! অনুদান নিয়ে বড় ঘোষণা মমতা সরকারের, মাথায় হাত কর্তৃপক্ষের

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দুর্গাপুজোয় রাজ্যের ক্লাবগুলিকে যে আর্থিক অনুদান রাজ্য সরকার (State Government) প্রদান করে সেই নিয়ে জোড় চৰ্চা চলছে। গতকালই এক পুজো কমিটির করা মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতির অমৃতা সিনহার মুখেও উঠে এসে এই প্রসঙ্গ। বিচারপতি বলেন, ‘‘আমি এমন অনেক মামলা শুনছি যেখানে মানুষ বেতন পাচ্ছেন না, চাকরি পাচ্ছেন না, পেনশন পাচ্ছে না। আর এখানে পুজো কমিটিকে অনুদান দেওয়া হচ্ছে!’’

বিচারপতির এই মন্তব্যের পরই শোরগোল পড়ে যায় গোটা রাজ্যে। অন্যদিকে এই আবহেই এবার ক্লাবগুলিকে দেওয়া আর্থিক অনুদান (Financial Donation) নিয়ে বিরাট ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। নবান্ন সূত্রে খবর, রাজ্যের ক্লাব সংগঠনগুলি ‘পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্য’ আর কোনও সরকারি টাকা দেওয়া হবে না।

তবে হঠাৎ কেন এমন সিদ্ধান্ত? প্রসঙ্গত ২০১২ সাল থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের বাছাই করা কিছু ক্লাবগুলির পরিকাঠামোর উন্নতির জন্য আর্থিক অনুদানের কথা ঘোষণা করেন। যার মাধ্যমে ক্লাবগুলিকে মোট ৫ লক্ষ টাকা দিত রাজ্য। প্রথম এক বছরে এককালীন ২ লক্ষ এবং পরের ৩ বছর ১ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হত।

যদিও কোভিড মহামারীর সময় থেকে এই অনুদান বন্ধ রেখেছিল রাজ্য। যদিও একেবারে বন্ধ করার কোনও ঘোষণা করেনি মমতা সরকার। তবে এবার থেকে এই অনুদান আর দেওয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন: মাত্র ৩ ঘন্টা! তারপরই তেড়ে ঝড়-বৃষ্টি রাজ্যের এই ৭ জেলায়, ভয়ঙ্কর আপডেট দিল আবহাওয়া দফতর

mamata nabanna

সূত্রের খবর, বিগত কয়েক বছর ধরে অনুদান হিসেবে যে টাকা ওই ক্লাবগুলিকে দেওয়া হয়েছিল তার
খরচের হিসাব জমা করতে বলা হয়েছিল। তবে বেশিরভাগ ক্লাবই নিয়ম মেনে খরচের কোনও হিসাব জমা দিতে পারেনি। তাই বাধ্য হয়েই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। ঘটনাচক্রে কালই অনুদান নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন বিচারপতি সিনহা আর এরই মধ্যে এই খবর সামনে আসায় চৰ্চা শুরু হয়েছে। যদিও নবান্ন সূত্রে খবর বিচারপতির মন্তব্যের সাথে এই সিদ্ধান্তের কোনও যোগসূত্র নেই।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর