সাগরে শক্তিশালী নিম্নচাপ, দাপট বাড়াচ্ছে ঘূর্ণাবর্তও! পশ্চিমবঙ্গে তৈরি হবে তুলকালাম পরিস্থিতি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : বর্ষার এসে গেলও ঝিরঝিরে বৃষ্টিতেই ভিজছে একাধিক রাজ্য। তবে নিম্নচাপের জেরে এবার ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা আছে রাজ্যে রাজ্যে। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে নতুন করে একটি নিম্নচাপ তৈরির সম্ভাবনা তৈরিতে শনিবার থেকেই আবহাওয়া (Weather) বদলের সম্ভাবনা রয়েছে। এই নিম্নচাপ শক্তি বাড়িয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে বলে মনে করা হলেও তবে এখনই মৌসুমী অক্ষরেখা বাংলার ওপরে অবস্থান করছে না।

অন্যদিকে গুজরাতের কচ্ছ সংলগ্ন এলাকায় এবং মধ্যপ্রদেশের বিদর্ভ ছত্তীশগড় সংলগ্ন এলাকায় তৈরি হচ্ছে আরেকটি ঘূর্ণাবর্ত। সেই কারণেই আজ শুক্রবার ২৮ জুলাই থেকে তেলেঙ্গানা, পূর্ব মহারাষ্ট্র, উত্তর-পূর্ব ভারত, পশ্চিমবঙ্গ, উত্তর প্রদেশ, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান,  বিহার, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু এবং আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে জানা গিয়েছে।

এছাড়াও, মৌসুমী বায়ু রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় এবং পশ্চিম-মধ্য এবং তৎসংলগ্ন উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর জুড়ে বিস্তৃত রয়েছে। এই নিম্নচাপ পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ধীরে ধীরে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হওয়ার পর তারপর তা আস্তে আস্তে উত্তর-পূর্বে পশ্চিমবঙ্গের দিকে সরে যাবে এমনটাই আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। ফলে, স্বাভাবিকভাবেই বঙ্গে উত্তাল পরিস্থিতি তৈরী হবে।

weather

 

উল্লেখ্য , আজ দক্ষিণ ওড়িশা, দক্ষিণ ছত্তিশগড়, তেলেঙ্গানা এবং সংলগ্ন পূর্ব মহারাষ্ট্রে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তেলেঙ্গানার কিছু জায়গায় আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ২৫০ মিলিমিটার বা তার বেশি ভারী বর্ষণ দেখা যাবে।পাশাপাশি আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন, আরব সাগর থেকে আর্দ্রতাপূর্ণ পশ্চিমী বাতাস আগামী কয়েক দিনের মধ্যে কোঙ্কন এবং মালাবার উপকূলে ভারী বৃষ্টিপাত সৃষ্টি করতে পারে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর