পরীক্ষা কেন্দ্রের কর্মীদেরই হাত? কিভাবে ফাঁস হল TET-র প্রশ্নপত্র! পর্ষদ সভাপতির কথায় শোরগোল

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ২০১৬ সাল থেকে প্রাথমিক টেট থমকে ছিল। তারপর গত বছর থেকে ফের শুরু। ২০২২ এও টেট নিয়েছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ (West Bengal Board of Primary Education)। আর এবছর গত ২৪ ডিসেম্বর নিয়ম নেওয়া হয়েছে ২০২৩ সালের টেট (TET) পরীক্ষা। তবে প্রতিবারের মতো এ বারের টেট নিয়েও বিস্তর অভিযোগ সামনে এসেছে।

পর্ষদ প্রথম থেকেই দাবি করেছে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে নেওয়া হবে টেট। থাকবে সিসিটিভি, মাছিও গলতে পারবে না। তবে এত সবের মধ্যেও এবার টেটের প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পরীক্ষা শেষ হওয়ার অনেক আগেই সোশ্যাল মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে টেটের প্রশ্নপত্র। যা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

কারা করল এই কাজ? এত নিরাপত্তা সত্ত্বেও কীভাবে ফাঁস হয়ে গেল প্রশ্নপত্র? এই প্রশ্নেই এখন সরগরম। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তদন্ত। এই বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছেন, পরীক্ষা কেন্দ্রের কোনও কর্মী জড়িত আছেন কিনা সেই বিষয়ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: পার্থর পর নিয়োগ দুর্নীতিতে এবার রাজ্যের আরেক মন্ত্রীর নাম! এই প্রথম গোটা তালিকা প্রকাশ করল CBI

ওদিকে গতবারের মত এবারেও পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে মিলেছে মোবাইল। যেখানে জলের বোতল পর্যন্ত নিয়ে ঢোকা নিষিদ্ধ সেখানে উত্তর দিনাজপুর সহ বেশ কয়েকটি পরীক্ষাকেন্দ্রের ভিতর থেকে উদ্ধার হয়েছে প্লাস্টিকে মোড়া মোবাইল। এ ক্ষেত্রে পরীক্ষার আগের দিন পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল রেখে আসার আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছে না পর্ষদ। এই কারণেই সন্দেহের তালিকায় পরীক্ষা কেন্দ্রে জড়িত কর্মীরা।

tet

প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়ে পর্ষদ সভাপতির বক্তব্য, পরীক্ষা শুরুর অনেক পর প্রশ্ন পত্র ফাঁস হয়েছে। শুরুর আগে হয়নি। তাই এর দায় পর্ষদের নয় বলেই জানিয়েছেন তিনি।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর