লোকসভা ভোটের পরই DA নিয়ে বড় ঘোষণা মমতার, পকেট গরম সরকারি কর্মীদের

   

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ লোকসভা ভোটে বঙ্গে বিরাট ভালো ফল করেছে তৃণমূল। মোট ২৯ খানা আসনে ফুটেছে জোড়াফুল। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই এবার সরকারি কর্মীদের জন্য বিরাট ঘোষণা। মে নয়, এপ্রিল থেকেই রাজ্য সরকারি কর্মীদের (West Bengal Government Employees) ৪% বর্ধিত হারে ডিএ (Dearness Allowance)। জানাল রাজ্য (Government Of West Bengal)।

প্রসঙ্গত ২০২৪ লোকসভা নির্বাচন শুরুর কিছুদিন আগেই গত ফেব্রুয়ারী মাসে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময় বাজেট পেশ করে ৪% ডিএ (DA) বৃদ্ধির ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার । সেই সময় ঘোষণা করা হয় সরকারি কর্মী, পেনশনভোগী এবং শিক্ষক-শিক্ষিকা সকলেই ১ মে থেকে বর্ধিত হারে DA অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতা পাবেন। তবে এবার সেই সিদ্ধান্ত বদল। মে মাসের পরিবর্তে এপ্রিল থেকেই সেই বর্ধিত হারে DA প্রদানের কথা জানাল রাজ্য। মঙ্গলবারই একথা জানানো হয়েছে রাজ্য সরকারের অর্থ দফতরের তরফে।

সরকারের ঘোষণার পর মনে করা হচ্ছে জুলাই মাসের বেতনের সঙ্গেই কর্মীদের অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারে এই বর্ধিত হারে DA. উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে লোকসভা নির্বাচনের প্রচার থেকেই মমতা বলেছিলেন, ১ মে-র পরিবর্তে ১ এপ্রিলের হিসেবে বর্ধিত হারে DA দেওয়া হবে। কথা মতোই হল কাজ। এবার সরকারিভাবে এই ডিএ-র বিষয় ঘোষণা করা হল।

আগে গত ২১ ডিসেম্বর রাজ্যের সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা ৪ শতাংশ বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই সেই বর্ধিত DA রাজ্যের সরকারি কর্মীদের পকেটে ঢুকছে। এরই মধ্যে এবার আরও ৪ শতাংশ। রাজ্যের সমস্ত ক্ষেত্রের সরকারি কর্মীরাই এপ্রিলের হিসেবে বর্ধিত হারে DA পাবেন।

da wb

আরও পড়ুন: শুভেন্দু অধিকারীর মামলায় বিরাট নির্দেশ হাইকোর্টের, জাস্টিস সিনহার রায়ে তোলপাড়

প্রসঙ্গত, এর আগে ১০ শতাংশ হারে ডিএ পেতেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। বর্তমানে তা বেড়ে হয়েছে ১৪%. বিগত সময়ে ৩ দফায় ডিএ বৃদ্ধির পর বর্তমানে ১৪% হারে মহার্ঘ ভাতা পাচ্ছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। যদিও কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার দাবিতে অনড় সরকারি কর্মীদের একাংশ। রাজ্য বাজেটের দিনও সরকারি কর্মীদের আরও চার শতাংশ DA বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করা হলেও তাতে একেবারেই খুশি নন তারা। সমানে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

Sharmi Dhar
Sharmi Dhar

শর্মি ধর, বাংলা হান্ট এর রাজনৈতিক কনটেন্ট রাইটার। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর। বিগত ৩ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ।

সম্পর্কিত খবর