বাংলার মুকুটে নয়া পলক, লন্ডনের মাটিতে স্থাপিত হল বাংলা ভাষা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ‘আ মরি বাংলা ভাষা’। বাংলাকে আগেই পৃথিবীর সবচেয়ে মিষ্টি ভাষা হিসেবে ঘোষণা করেছিউ ইউনেস্কো। এবার খোদ লন্ডনের বুকেও বাংলায় লেখা হল রেল স্টেশনের নাম। ইংরাজীর পাশেই জ্বলজ্বল করতে থাকা বাংলা নামটি দেখে কার্যতই গর্বে বুক ফুলে উঠছে বাঙালির। পূর্ব লন্ডনের ব্যস্ততম এই মেট্রো স্টেশনের নাম বাংলায় লেখার ব্যাপারটি বাংলা ভাষার মুকুটে একটি অলিখিত মুকুট যোগ করল বলেই মনে করছেন অনেকে।

   

পূর্ব লন্ডনের ব্যস্ততম মেট্রো রেল স্টেশন হোয়াইট চ্যাপেল। আর এই স্টেশনের নামই লেখা হয়েছে বাংলায়। অতি ছোটো ছোটো অক্ষরে কিংবা বিকল্প হিসেবে নয়,৷ দিব্যি গোটাগোটা অক্ষরে জ্বলজ্বল করছে সেই নাম। স্টেশনের প্রবেশপথে বাংলায় লেখা রয়েছে ‘হোয়াইটচ্যাপেল স্টেশনে আপনাকে স্বাগত’। সেই সঙ্গে স্টেশনটির একাধিক প্রবেশ দ্বারেও বাংলাতেই লেখা হয়েছে নাম। আর এই ব্যাপার দেখে আনন্দে আত্মহারা সে শহরের প্রবাসী বাঙালিরা।

বাংলা ভাষা,বাংলা,ব্রিটেন,লণ্ডন মেট্রোরেল,হোয়াইটচ্যাপেল স্টেশন,Historic Whitechapel station,London metro,Bengali,Bengali Language,london,bangla

 

কিন্তু হঠাৎ কেন এই সিদ্ধান্ত নিল মহারাণীর প্রশাসন? জানা যাচ্ছে এক বছরেরও বেশি সময় ধরেই কাজ চলছে হোয়াটচ্যাপেল স্টেশনের। সংস্কার কাজ ছাড়াও বিমানবন্দরে দ্রুত যাতে পৌঁছাতে পারেন যাত্রীরা সেই কারণে কুইন এলিজাবেথ লাইনের সঙ্গেও সংযুক্ত করা হয়েছে এই স্টেশনটিকে।

বাংলা ভাষা,বাংলা,ব্রিটেন,লণ্ডন মেট্রোরেল,হোয়াইটচ্যাপেল স্টেশন,Historic Whitechapel station,London metro,Bengali,Bengali Language,london,bangla

সংস্কার কাজ চলাকালীন স্টেশনটির নাম বাংলায় লেখার জন্য দাবি জানিয়েছিলেন লন্ডনের বাঙালিরা। এতদিন সেই দাবি নিয়ে কোনও ফলাফল দেখা না গেলেও শনিবারের একেবারে হাতেনাতে ফলাফলে চোখ কপালে সক্কলের। স্টেশনটির নাম বাংলায় লেখার এই সিদ্ধান্তটি নেওয়া ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন অথরিটির তরফে। এককালে মাতৃভাষা বাংলার গৌরব পুনরুদ্ধারে নেমে জীবন দিয়েছেন একের পর এক যুবক যুবতী। ভাষা শহিদ হয়ে নিজেদের রক্ত দিয়েও তাঁরা পুজো করেছেন মায়ের দুগ্ধসম বাংলা ভাষাকে। তাই এবার লণ্ডনের বুকে বাংলায় লেখা স্টেশনের নাম যে বাঙালিরই শক্তি,সামর্থ্য এবং ঐতিহ্যের ঘোষক হবে, তা নিয়ে নিয়ে সন্দেহের অবকাশ থাকে না।