সিঙ্গুরের মাটিতে প্রথম সরষের বীজ কে ছড়িয়েছিলেন? মেয়েদের স্কুলের প্রশ্ন নিয়ে জোর বিতর্ক

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কিছুদিন আগেই নন্দীগ্রামের এক স্কুলের দশম শ্রেণীর অঙ্ক প্রশ্ন নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল রাজ্য রাজনীতি। যেই প্রশ্নে নাম ছিল বঙ্গ রাজনীতির প্রথম সারির দুই ব্যক্তি বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী ও আইএসএফ নেতা নওশাদ সিদ্দিকীর নাম। যা নিয়ে জোর বিতর্ক চলেছিল। তার কয়েকমাস কাটতে না কাটতেই এবার ইতিহাসের প্রশ্নপত্রের একটি প্রশ্ন ঘিরে ফের শুরু হল জোরদার বিতর্ক (Controversy)।

   

সিঙ্গুরের (Singur) মাটিতে কে প্রথম সরষের বীজ ছড়িয়েছিলেন? সম্প্রতি এক স্কুলে ক্লাস এইটের ইতিহাসে প্রশ্ন এসেছে। যদিও এই প্রশ্নে কোনও নির্দিষ্ট সময় বা সালের কথা উল্লেখ করা হয়নি। শুধুমাত্র কে বীজ ছড়িয়ে সেই প্রশ্ন করা হয়েছে। সিঙ্গুরের গোলাপ মোহিনী মল্লিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির এই এক প্রশ্ন নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিঙ্গুরে তৃণমূলের কৃষিজমি আন্দোলনের পর দশ বছরেরও বেশি সময় অতিবাহিত হয়েছে। ২০১৬ সালে সিঙ্গুরে টাটা প্রকল্পের জন্য অধিগৃহীত জমি, চাষিদের ফিরিয়ে দেয় রাজ্য সরকার। চাষিদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার পর ওই বছরেরই ২০ অক্টোবর, ফের চাষীদের চাষে উৎসাহ দিতে, সরষের বীজ ছড়িয়ে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেই ঘটনাই এবার উঠে এল স্কুলের প্রশ্নপত্রে।

আরও পড়ুন: সাবধান! আগামী ২-৩ ঘণ্টার জন্য দক্ষিণবঙ্গের ‘এই’ ৬ জেলায় সতর্কতা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর

উল্লেখ্য, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অষ্টম শ্রেণির একটি বই রয়েছে অতীত ও ঐতিহ্য নামে। সেই বইয়ে কৃষিজমির অধিকার- সিঙ্গুর গণ আন্দোলন নামে একটি অধ্যায় রয়েছে। যেখানে ২০১৬ সালে টাটার বিরুদ্ধে আন্দোলন, জমি অধিগ্রহণ, কৃষকদের আন্দোলন, আদালতের নির্দেশে জমি ফিরে পাওয়া এই সমস্ত বিষয়ের উল্লেখ রয়েছে। সেখান থেকেই প্রশ্ন দেওয়া হয়েছে।

singur question

এই প্রশ্ন নিয়ে বিজেপি কটাক্ষ করলেও তৃণমূলের দাবি, পাঠ্য পুস্তকের সিলেবাসে আছে বলেই তা থেকেই প্রশ্ন করা হয়েছে। বিতর্ক প্রসঙ্গে ওই স্কুলের শিক্ষিকা বনানী চৌধুরী বলেন, “ পরীক্ষায় এই অধ্যায় থেকে বড় প্রশ্ন দেওয়া হয়নি। তাই সহজ দেখে ছোট একটি প্রশ্ন দেওয়া হয়েছিল। তবে সালটা উল্লেখ করে দিলে ভালো হত।”