আবহাওয়ার খবর: মাঝপৌষে আবার ঠান্ডা, আশার কথা শোনাল আবহাওয়া দপ্তর

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ  বড়দিনে আগেই ছিল বড়দিনে বৃষ্টির পূর্বাভাস। কলকাতাসহ দক্ষিনবঙ্গে মেঘলা আকাশ ছিল গত বেশ কিছুদিন ধরেই।  সাথে পারদও বেড়ে গিয়েছিল ২-৩ ডিগ্রি।  যার জেরে জাঁকিয়ে পড়া ঠান্ডা থেকে বঞ্চিত হয়েছিল কলকাতাবাসী। আকাশ মেঘলা থাকলেও বড়দিনে হয়নি বৃষ্টিপাত। যার জেরে মানুষের ঢল নেমেছিল কলাকাতা পার্ক স্ট্রীট, ভিক্টোরিয়া, ইকো পার্ক সহ কলকাতার দর্শনীয় স্থানগুলিতে।

   

বড়দিনে বৃষ্টি না হলেও শীতের তীব্রতা কমে যাওয়ায় হতাশ হয়েছিলেন অনেকে। এবার আশার কথা শোনাল হাওয়া অফিস। আগামি ২৪ ঘন্টায় হালকা বৃষ্টিপাত হতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গে। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারনে তৈরি হওয়া বৃষ্টিপাত হয়ে গেলেই জাঁকিয়ে পড়বে ঠান্ডা।

গতদিনের তুলনায় আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাওমাত্রা বেড়ে হয়েছে ১৫.৭ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। একই সাথে রয়েছে হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাসও। যদিও শহর কলকাতায় তেমন একটা বৃষ্টি হবে না বলেই মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। তুলনামূলক ভাবে ভারি বৃষ্টি হবে পাশের রাজ্য ঝাড়খণ্ড লাগোয়া পশ্চিমের জেলা গুলিতে।

দক্ষিণ বঙ্গে মেঘ ও ঘুর্নাবর্তের কারনে তাপমাত্রা বাড়লেও উত্তরবঙ্গে তার প্রভাব পড়েনি। দার্জিলিং, কার্শিয়াং এর মত ট্যুরিষ্ট স্পট গুলিতে জমিয়ে পড়েছে ঠান্ডা। যার কারনে হাসি চওড়া হয়েছে পাহাড়প্রেমী মানুষের। যদিও দার্জিলিং-এ আগামীকাল হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

মাঝ পৌষে এই বৃষ্টি ও তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় বছরের শেষ সপ্তাহের ছুটির আমেজ নষ্ট হবে বলে মনে করছিলেন অনেকেই। সেই চিন্তা থেকে রেহাই মিলবে এবার। বছর শেষে আবার জমিয়ে শীত পড়বে।

সম্পর্কিত খবর