টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গলাইফস্টাইল

এই ৫ রাশির জাতিকারা মজে ওঠেন বয়স্কদের প্রেমে, অর্পিতার ক্ষেত্রেও কী তাই ঘটেছে!

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কিছুদিন আগে পর্যন্ত রাজ্য রাজনীতি ব্যস্ত ছিল শোভন – বৈশাখীর সম্পর্কের রসায়ন নিয়ে। এবার শোভন – বৈশাখীকে জোড়া গোলে হারিয়ে বাজার দখল করেছে পার্থ – অর্পিতা। শুধু অর্পিতা নয়, প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাথে একের পর এক নাম জুড়ছে বিভিন্ন সুন্দরী মহিলাদের। এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় হট টপিক রাজ্যের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের সাথে সুন্দরী কম বয়সী মেয়েদের সম্পর্ক। শুধু কি টাকা বা ক্ষমতার লোভ? নাকি অন্য কোন কারণ আছে যার জন্য বেশি বয়সী পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট হন মহিলারা? এ বিষয়ে কি বলছে ভারতীয় সনাতন জ্যোতিষ শাস্ত্র?

তথ্য অনুযায়ী প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৫২ সালের ৬ই অক্টোবর। হিসাব অনুযায়ী তার এখন বয়স ৬৯ বছর। অন্যদিকে অর্পিতার জন্ম ১৯৮৬ সালের ১০ই জুন। অংকের হিসাব অনুযায়ী অর্পিতার থেকে পার্থ প্রায় ৩৩ বছরের বড়।
আজ আমরা দেখে নেব এমন পাঁচ রাশির জাতিকাদের যারা সহজেই আকৃষ্ট হন বয়সে বড় পুরুষদের প্রতি।

সিংহ রাশি : এই রাশির অধিপতি স্বয়ং রবি। রবির মত তেজী ভাব থাকে এই রাশির জাতিকাদের। সৌর মন্ডলে যেমন রবি বা সূর্য আলোকিত করে রাখে চারদিক তেমনি এই রাশির জাতিকার “আলোর” প্রতি আকৃষ্ট হন সবাই। প্রেমের ক্ষেত্রে অত্যন্ত এনারজেটিক ও আবেগপ্রবণ হয়ে থাকেন এরা। এই রাশির মহিলারা সর্বদা তার পার্টনারের কাছ থেকে উপহার বা সময় আশা করে থাকেন। অনেকটা সেই কারণে অপেক্ষাকৃত বয়সে বড় পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট হন এনারা। এরই সাথে সিংহ রাশির মহিলাদের মনের ইচ্ছা থাকে তাদের পার্টনাররা তাদের প্রতি প্রটেকটিভ হবেন। পরিণত মস্তিষ্ক, মার্জিত পুরুষের প্রতি তাই বেশি করে আকৃষ্ট হন সিংহ রাশির নারীরা।

মীন রাশি: মীন রাশির মহিলারা সর্বদা খোঁজেন ভরসাযোগ্য কোন পুরুষকে। বয়সে বড় যে কোন পুরুষের কাছ থেকে এই ধরনের ভরসা বা স্নেহ পেলে সহজেই তার প্রেমে আকৃষ্ট হন তারা। বয়সে বড় পুরুষেরা তাদের পরিণত মস্তিষ্ক ও অধিক অভিজ্ঞতা দিয়ে আগলে রাখেন তার সঙ্গিনীকে। তাই মীন রাশির মহিলারা সর্বদাই “ম্যাচিওর মস্তিষ্কের” পুরুষের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে থাকেন।

কন্যা রাশি: কন্যা রাশির মহিলারা সর্বদা চান একটু মনোযোগ। ডেটিং হোক বা সংসার, এই রাশির জাতিকারা সর্বদা চান তার পছন্দের পুরুষটি যেন তার প্রতি সর্বদা খেয়াল রাখেন। কন্যা রাশির মহিলাদের সর্বদা একটু চঞ্চলভাব লক্ষ্য করা যায়। তাই তাদের যারা শান্ত রাখতে পারবেন সেই সকল পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট হন কন্যা রাশির জাতিকারা।

কুম্ভ রাশি: কুম্ভ রাশির জাতিকারা খুব একটা সহজে প্রেম বা সম্পর্কের মধ্যে জড়াতে চান না। এদের মধ্যে অসমবয়সী প্রেম স্থায়িত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি লক্ষ্য করা যায়। তাই বয়স বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে এই রাশির নারীরা খোঁজেন অপেক্ষাকৃত বড় বয়সের পুরুষদের।

মকর রাশি: মকর রাশির জাতিকারা অত্যন্ত পরিণত মস্তিষ্কের হয়। প্রেম বা সম্পর্কের ক্ষেত্রে তাই তারা অল্প বয়সে পুরুষদের সর্বদা এড়িয়ে যেতে চান। বয়সে বড় প্রবল বুদ্ধি সম্পন্ন পরিণত মস্তিষ্কের পুরুষ এদের কাছে বেশি আকর্ষণীয়। শক্তিশালী, দীর্ঘ সম্পর্কে বিশ্বাসী এই রাশির জাতিকারা। তাই এনারা চান এমন কারোর হাত ধরতে যাদের সাথে সারাটা জীবন কাটিয়ে দেওয়া যায়।

Related Articles