দেখে টিভি, সঙ্গে খায় টক দই! এটাই হল বিশ্বের সবচেয়ে ‘বুড়ি’ মুরগি, অবাক করবে এর বয়স

   

বাংলাহান্ট ডেস্ক : মুরগি বলতেই আমাদের চোখে ভেসে ওঠে নানা রকমের সুস্বাদু পদ। কিন্তু অনেকেই আছেন যারা অন্যান্য পশু-পাখির মতো মুরগি পালন করেন। তবে সেই মুরগি যদি বিশ্ব রেকর্ড করে তাহলে তো কথাই নেই! হ্যাঁ, আমরা কথা বলছি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পিনাটকে নিয়ে। সাধারণত একটি মুরগির আয়ু ৫ থেকে ৮ বছর হয়ে থেকে।

তবে সেটাও অনেক সময় হয়না। কিন্তু আমেরিকার মিশিগানের এই মুরগি পিনাটের বয়স ২১ বছর। বিশ্বাস করতে অসুবিধা হলেও এটা সত্যি। এই মুহূর্তে পিনাট বিশ্বের সব থেকে বৃদ্ধা জীবিত মুরগি। অত্যন্ত স্মার্ট আর চতুর এই মুরগি ইতিমধ্যেই নিজের নাম তুলে ফেলেছে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড-এ। যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের এক দম্পতি দেখভাল করে এই মুরগির।

আরোও পড়ুন : পুজোর আগে রাজ্যবাসীকে ১০ হাজার টাকা উপহার পশ্চিমবঙ্গ সরকারের! জেনে নিন কীভাবে পাবেন

মার্সি পার্কার ডারউইন মাতৃ স্নেহে পালন করেছে পিনাটকে। নো কিল ফার্ম নামে একটি ফার্ম রয়েছে এই দম্পতির। সেই ফার্মে রয়েছে একাধিক প্রাণী। সেই প্রাণীদের সাথেই থাকে পিনাট। পিনাটের এই স্বীকৃতি নিয়ে উচ্ছ্বসিত তার পালিতা মার্সি। তিনি বলেছেন, পিনাট অত্যন্ত স্মার্ট মুরগি। সকাল বেলা ব্রেকফাস্টে ওর ব্লুবেরি ইয়োগার্ট চাইই চাই, না পেলে ওর মুড অফ হয়ে যায়।

আরোও পড়ুন : এগুলো কী! নদিয়ায় পুরনো বাড়ির মাটি খুঁড়তেই মিলল বহুমূল্য তিনটি বিষ্ণু মূর্তি, তারপর….

মার্সি আরও জানিয়েছেন, পিনাটকে অস্বীকার করে ওর মা। ডিমের খোলস থেকে যখন পিনাট বেরিয়ে এসেছিল, তখন ওর মা ওর দিকে তাকায়নি। মার্সি জানান তারপর থেকে তিনিই পিনাটের মা। নামকরণ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে মার্সি বলেন, জন্ম থেকেই সে খুব বাদামি রঙের ছিল। সেই থেকে নাম পিনাট হয়।

world oldest hen

ফার্মের অন্যান্য কুকুর-বিড়াল ও অন্যান্য প্রাণীদের সাথে খেলে বেড়ায় পিনাট। বাইরে বেশি ঘোরা অবশ্য পছন্দ নয় তার। মার্সির ঘরেই অধিকাংশ সময় কাটে পিনাটের। এমনকি তাল মিলিয়ে পিনাট টিভিও দেখে মার্সির সাথে। পিনাটের খবর অবশ্য প্রকাশ্যে আসতেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় গোটা বিশ্বে।

Avatar
Soumita

আমি সৌমিতা। বিগত ৩ বছর ধরে কর্মরত ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমে। রাজনীতি থেকে শুরু করে ভ্রমণ, ভাইরাল তথ্য থেকে শুরু করে বিনোদন, পাঠকের কাছে নির্ভুল খবর পৌঁছে দেওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

সম্পর্কিত খবর