টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

‘জয় শ্রী রাম” নাম শুনে রেগে যাওয়া দিদিও এখন চণ্ডীপাঠ করছেন! পুরুলিয়ায় বললেন যোগী আদিত্যনাথ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আজ একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচার অভিযানে পুরুলিয়ার বলরামপুরে একটি জনসভা করেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সেই জনসভা থেকে তিনি তৃণমূল সরকার এবং তৃণমূল নেত্রীকে নিশানা করেন। যোগী আদিত্যনাথ বলেন, ‘রাজ্য জুড়ে অরাজকতা চলছে। অবৈধ বাংলাদেশীরা রাজ্যে ঢুকে গরিব মানুষের ভাত খাচ্ছে। রাজ্য সরকার উদাসীন। আমরা এই রাজ্যে ক্ষমতায় এলে একটা মাছিও ঢুকতে দেব না।”

যোগী আদিত্যনাথ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে বলেন, ‘একবার উনি পুরীর মন্দিরে পুজো করেতে গিয়েছিলেন, সেখানে তিনি নামাজ পাঠের ভঙ্গিতে পুজো করতে বসেছিলেন। এরপর মন্দিরের পুরোহিত ওনাকে সতর্ক করে বলেন, এটা মন্দির, মসজিদ নয়।”  যোগী আদিত্যনাথ বলরামপুরের সভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন মঞ্চে উঠে চণ্ডীপাঠ করছেন। এটাই তো আমাদের নতুন ভারত।” তিনি বলেন, এই নতুন ভারতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর রাহুল গান্ধীর মতো নেতা এখন মন্দিরে গিয়ে পুজো দেন।

যোগী আদিত্যনাথ পুরুলিয়ার বিজেপির তিন কর্মীর হত্যার কথা উল্লেখ করে বলেন, হরিরাম মাহাতো, মণিকা কুমার এবং কামিনী টুডু বিজেপি করত বলে তৃণমূলের গুণ্ডারা ওদের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। আমরা ক্ষমতায় এলে এদের শাস্তি হবে। রাজ্যে অরাজকতার অবসান হবে।

যোগী আদিত্যনাথ বাংলার মাটিকে পবিত্র ভূমি এবং স্বাধীনতা আন্দোলনের কেন্দ্র হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, ‘বাংলার এত গৌরব, এরপরেও কংগ্রেস, কমিউনিস্ট আর তৃণমূলের ১০ বছর রাজত্বে রাজ্যের গরিব মানুষরা নিঃস্ব হয়ে গিয়েছে। বেকার বেড়ে গেছে, দারিদ্রতা বেড়েছে।

Related Articles

Back to top button