‘হ্যারি পটার’র অদৃশ্য চাদর এখন বাস্তবেও! চিনা বিজ্ঞানীদের আবিষ্কার দেখে তাজ্জব দুনিয়া

বাংলা হান্ট ডেস্ক : আপনি কি এমন কোনো পর্দা দেখেছেন, যার মধ্য দিয়ে সবাই দেখতে পাবেন কিন্তু মাঝখানে থাকা বস্তুটিকে কেউ দেখতে পাবেননা। বস্তুটি দেখা যায় না কেন? সম্প্রতি চীনের (China) এক গবেষক (Scientist) এমন একটি নতুন পোশাক তৈরী করেছেন যা একেবারেই অদৃশ্য।

   

অদৃশ্য পর্দা : আপনারা কি কখনো এমন পর্দা বা চাদর দেখেছেন, যার মধ্যে দিয়ে সব দেখতে পায় কিন্তু মাঝখানে থাকা বস্তুটি দেখা যায় না। সম্প্রতি চীনের এক গবেষক এমনি একটি জিনিস তৈরী করেছেন যা অদৃশ্য। সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে, যা দেখে মানুষ নিজের চোখকে বিশ্বাস করাতে পারছেননা। এই পোশাকটির গবেষকের নাম হল, চু জুনহাও।

আমরা যেমন ‘হ্যারি পটার’ মুভিতে দেখেছিলাম, কিছু লোক এমন পোশাক পরে যা তাদেরকে অদৃশ্য করে দেয়, সেই রকমই একটি পোশাক দেখা যাচ্ছে।

গবেষক এমন জিনিস আবিষ্কার করেছেন, যার মধ্যে দিয়ে দেখা গেলেও মাঝের বস্তুটি অদৃশ্য। এটিকে অদৃশ্য ক্লোক বা ক্লোক বলা হয়। এটিকে আপনারা একটি নতুন যুগের সূচনাও বলতে পারেন, যার দৃশ্যমান এবং অদৃশ্যমানের মাঝখানে রেখাটি হঠাৎই অস্পষ্ট হয়ে যায়।

এমন পোশাক বানানোর কারণ কি জানেন?

আসলে এটি আলো নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ডিসাইন করা হয়েছে। এটিতে বাস্তব সমাধানের সাহায্যে আলোগুলিকে পরিচালনা করতে পারে। এটি এমন একটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, যার সাহায্যে মানুষের চোখ ফাঁকি দেওয়া আরও সহজ হয়ে উঠবে। এর মাধ্যমে গোপনে নজরদারি এবং গোপনে অপারেশন করা যাবে।

 

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এই প্রযুক্তির সাহায্যে আরও অনেক ধরণের ডিভাইস প্রস্তুত করা যেতে পারে। এই প্রযুক্তির একটি ভিডিও ইনস্টাগ্রামে ভাইরাল হচ্ছে, যাতে দেখানো হয়েছে, একজন ব্যক্তি ডিভাইসটি নিয়ে মঞ্চে আসেন এবং তারপর, ভিডিওতে দেখানো হয়, তার পা কিভাবে অদৃশ্য হয়ে যাচ্ছে। এই ভিডিওটি নিয়ে সবাই নিজের মন্তব্য রেখেছেন, একজন বলেছেন, ‘সাবধান বন্ধুরা, শীঘ্রই এটি বাস্তব জীবনে দেখা যেতে পারে’। আরেকজন ব্যবহারকারী কমেন্ট বক্সে ক্ষুব্ধ হয়ে লিখেছেন, ‘চীনে এরকম অদ্ভুত কিছু দেখা যাচ্ছে’। তৃতীয় একজন লিখেছেন, ‘এটি হ্যারি পটারের জাদু’।