বার্ধক্য ভাতা নিয়ে বড় আপডেট, আজ থেকে কপাল খুলবে বৃদ্ধদের! এই জায়গাগুলিতে বসছে ক্যাম্প

বাংলা হান্ট ডেস্ক : লক্ষ্মীবারেই লক্ষ্মী পৌঁছে যাবে রাজ্যের ৭০ হাজার বয়স্ক মানুষের কাছে। এর আগে বিজয়া সম্মিলনীতে গিয়ে এমনটাই দাবি করেছিলেন তৃণমূলের (Trinamool Congress) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। যুবনেতা কথা দিয়েছিলেন যে, ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের ৭০ হাজার বয়স্ক মানুষের হাতে বৃদ্ধ ভাতা (Bardhakya Bhata) তুলে দেবেন তিনি। এবং আজ অর্থাৎ এই বৃহস্পতিবার থেকেই শুরু হয়ে যাবে সেই ক্যাম্প।

   

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে রাজ্যের বহু মানুষ বার্ধক্য ভাতার আবেদন জানিয়েছেন। তবে রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেলেও এখনও অবধি আটকে আছে তাদের বার্ধক্য ভাতা। যে কারণে সমস্যায় পড়েছেন রাজ্যের বহু মানুষ। আর এবার বিজয়া সম্মিলনীতে গিয়ে অভিষেক দাবি করেন, এই সমস্যার সুরাহা তিনি করবেন। আর এবার সেটাই শুরু করলেন।

কথা ছিল জানুয়ারি মাস থেকেই শুরু হয়ে যাবে এই ক্যাম্প। তবে সেই সময়ের এক মাস আগেই শুরু হয়ে গেল দলের তরফ থেকে বার্ধক্য ভাতা দেওয়ার কাজ। যদিও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যখন এই ঘোষণা করেছিলেন তখন বিরোধীরা তাকে কথা শোনাতে ছাড়েনি। রাজনৈতিক মহলে কথা উঠেছিল, আসন্ন ভোটের আগেই টাকা দিয়ে মানুষকে কিনতে চাইছে তৃণমূল।

আরও পড়ুন : ‘বাংলায় আমরা ক্ষমতায় এলে বুঝবেন উন্নয়ন কী’, PoK নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তৃণমূলকে খোঁচা শাহের

এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা সুফল ঘটু বলেন, ‘সরকারি প্রকল্পের টাকা ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ নিজে দেওয়ার জন্য আলাদা করে দফতর খুলেছেন পৌরসভা ও পঞ্চায়েত এলাকায়। তাহলে কি রাজ্য সরকার ব্যর্থ? এখানে তো অভিষেকের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংঘাত ফুটে উঠেছে। আর এই টাকার উৎস কী? আসলে ভোট এসে গিয়েছে জিততে হবে। কেন্দ্রের প্রকল্প মানুষের কাছে পৌঁছতে না দিয়ে নিজেরা নাটক করে এই সব করে দেখানোর চেষ্টা করছে।’

সম্পর্কিত খবর