ব্রিজ, রেল লাইন অতীত, রাতারাতি গায়েব আস্ত মোবাইল টাওয়ার! ঘুম ভাঙতেই তাজ্জব গ্রামবাসী

বাংলা হান্ট ডেস্ক : বিহারে (Bihar) আস্ত ব্রিজ চুরির পর এবার এক অদ্ভুত ঘটনার সাক্ষী রইল যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) উত্তরপ্রদেশ (Uttarpradesh)। ইউপির কাউশাম্বি জেলার উজ্জয়িনী গ্রামে ৫০ মিটার লম্বা মোবাইল টাওয়ার (Mobile Tower) চুরি করে পালাল চোরেরা। এক রাতের মধ্যে একটি আস্ত টাওয়ারকে গায়েব হতে দেখে যারপরনাই অবাক স্থানীয় লোকজন।

গায়েব আস্ত টাওয়ার

   

মিডিয়া সূত্রে জানা যাচ্ছে, ৫০ মিটার লম্বা এই টাওয়ারটিকে ইনস্টল করার জন্য থাকা ইলেকট্রিক সরঞ্জাম, ও অন্যান্য জিনিসও চুরি করে নিয়ে গেছে চোরেরা। ঘটনাটি জানাজানি হতেই পুলিশী অভিযোগ জমা করেন রাজেশ কুমার নামের এক টেকনিশিয়ান। এবং পুলিশ সূত্রে খবর, সবমোট প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার জিনিস গায়েব।

৯ মাস ধরে চলে তদন্ত

ঘটনার তদন্ত শুরু করার পর যার জমিতে টাওয়ারটি বসানো হয়েছে সেই মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি জানান, এই বিষয়ে তিনি কোনোকিছুই জানেননা। বরং টাওয়ারটি রাতারাতি গায়েব হয়ে যাওয়ার পর কোম্পানি সাইট পরিদর্শনে গেলে তিনি বলেন, তিনি কিছুই জানেননা। এরপর গোটা বিষয়টির তদন্ত করতে কোম্পানির সময় লেগে যায় প্রায় ৯ মাস। দীর্ঘ ৯ মাস পর পুলিশের দ্বারস্থ হয় কোম্পানিটি।

আরও পড়ুন : ব্যাঙ্ক থেকে আধার, সিম ও ক্রেডিট কার্ড! ডিসেম্বরে বদলাচ্ছে ৮ নিয়ম! বিপদে পড়ার আগে সেরে ফেলুন কাজ

মামলার তথ্য দিতে গিয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ভুবনেশ চৌবে বলেন, জিটিএল কোম্পানির মোবাইল টাওয়ার চুরি হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের কৌশাম্বি জেলার প্রতাপগড় রানিগঞ্জ থানার রাস্তিপুর গ্রামে এই চুরির ঘটনা ঘটে। চুরির অভিযোগটি করেছেন জিটিএল কোম্পানির কর্মকর্তা রাজেশ কুমার যাদব। উল্লেখ্য, কোম্পানিটি গোটা জেলায় বিভিন্ন স্থানে মোট ১৬টি মোবাইল টাওয়ার বসিয়েছে।

mobile tower 1674199476

মোট ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ১৫ লক্ষ

যারমধ্যে চুরি হওয়া মোবাইল টাওয়ারটি সন্দীপন ঘাটের উজিহানী খালসা গ্রামের মজিদ উল্লাহর ছেলে উবায়দ উল্লাহর জমিতে বসানো হয়েছিল। এতে করে কোম্পানির প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সেটআপ বাবদ ক্ষতি প্রায় ৮ লক্ষ ৫২ হাজার টাকা এবং WDV বাবদ ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৪ লক্ষ ২৭ হাজার টাকা‌। এরপর প্রতিষ্ঠানটি নিজে টাওয়ারটির খোঁজ শুরু করে। তাতেও সুরাহা না মেলায় অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন তারা।